২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘এত তাণ্ডব চালিয়েছে আমফান!’, বোটানিক্যাল গার্ডেন ঘুরে বিস্ময় প্রকাশ দিলীপের

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 31, 2020 5:32 pm|    Updated: May 31, 2020 5:48 pm

An Images

অরিজিৎ গুপ্ত, হাওড়া: প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আমফানের দাপটে অত্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত শিবপুরের বোটানিক্যাল গার্ডেন। এই উদ্যানের প্রধান আকর্ষণ মহা বটবৃক্ষেরও ক্ষতি হয়েছে যথেষ্টই। রবিবার আমফান পরবর্তী বোটানিক্যাল গার্ডেন পরিদর্শন করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ

২৭৩ একর জমিতে রয়েছে আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু বোটানিক্যাল গার্ডেন। যা শিবপুর বি গার্ডেন নামেই অধিক পরিচিত। ১৪০০ প্রজাতির প্রায় ১৭ হাজার গাছ রয়েছে এখানে। মেহগনি, শাল, সেগুন, অশ্বত্থ, শিমুল, পিয়াল-সহ বহু গাছ এখানে রয়েছে। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ রবিবার শিবপুর বি গার্ডেনের বেশিরভাগ এলাকা ঘুরে দেখেন। আমফানের তাণ্ডবে ক্ষয়ক্ষতি দেখে প্রায় অবাক হয়ে যান তিনি।

দিলীপ ঘোষ বলেন,”১৫ হাজারের বেশি গাছ রয়েছে এখানে। বেশিরভাগ গাছের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পুরনো ঝাউগাছ, মেহগনি গাছের ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতি হয়েছে বোটানিক্যাল গার্ডেনের আড়াই শতক পেরনো মহা বটবৃক্ষেরও। কোনও গাছ মাঝখান থেকে ভেঙেছে। আবার কিছু গাছ পুরো উলটে গিয়েছে। সল্টলেক, কলকাতায় গাছ ভাঙতে দেখেছি। তবে লোহার মতো শক্ত গাছ যে ভাঙতে পারে তা না দেখলে বুঝতে পারতাম না। আমফান যে সত্যিই তাণ্ডব চালিয়েছে তা বোটানিক্যাল গার্ডেনকে দেখে বুঝতে পারছি। যান্ত্রিক করাত ছাড়া ভাঙা গাছ কেটে কোনওভাবে বোটানিক্যাল গার্ডেনকে আগের রূপ দেওয়া সম্ভব নয়। প্রায় ২-৩ মাস সময় লাগতে পারে।”

[আরও পড়ুন: আমফান মোকাবিলায় সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে বাংলা, দরাজ সার্টিফিকেট প্রধানমন্ত্রীর]

সুপার সাইক্লোন আমফানের তাণ্ডবে গোটা রাজ্যে প্রচুর গাছের ক্ষতি হয়েছে। পরিবেশ বাঁচাতে গাছ বসানোর বার্তা দিয়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, “রথযাত্রার দিন গাছ বসান। আমি পরিবেশ দিবসেও গাছ লাগাবো। একটা গাছের বদলে দু’টো, পাঁচটা গাছ বসান। কমপক্ষে নিজে একটা গাছও লাগান। বাড়িতে জায়গা না থাকলে টবে গাছ লাগান। নইলে অক্সিজেনের অভাব হতে পারে।” এদিকে, ক্ষতির পরিমাণ পরীক্ষা করে কেন্দ্রীয় পরিবেশ ও বনমন্ত্রকে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে। গার্ডেনকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনাও শুরু হয়েছে। ঝড়ে বহু গাছের ক্ষতি হওয়ায় উদ্বিগ্ন স্থানীয় বাসিন্দারা। একাধিক পরিবেশপ্রেমী সংগঠনও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: আমফানের তাণ্ডবে তছনছ গোসাবা-বাসন্তী-নামখানা, পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে নামল সেনা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement