২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১৭ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘১০ বছর রাজত্ব করতে হলে দু’বছর উপোস করুন’, তৃণমূল বুথ সভাপতিদের কড়া বার্তা চন্দ্রনাথ সিনহার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 3, 2022 8:58 pm|    Updated: July 3, 2022 10:32 pm

Do fasting for two years in order to govern for next 10 years, strong message from WB Minister Chandra Nath Sinha | Sangbad Pratidin

ভাস্কর মুখোপাধ্যায়, বোলপুর: ‘কোনওরকম দুর্নীতি করলে নিজের দায়িত্বে করবেন, দল তার দায়িত্ব নেবে না’। বোলপুরে তৃণমূলের (TMC) কর্মী সম্মেলন থেকে বুথ সভাপতিদের উদ্দেশে এমনই স্পষ্ট বার্তা দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা। ২০২৪ সাল পর্যন্ত তাঁদের ‘উপোস’ করার কথা বললেন তিনি। মন্ত্রীর এই বক্তব্য় নিয়ে কটাক্ষ করেছে স্থানীয় বিজেপি (BJP) নেতৃত্ব। বিরোধীদের অভিযোগ, দলীয় কর্মীদের স্রেফ আগামী ২ বছরের জন্য সতর্ক করে দিলেন মন্ত্রী।

রবিবার ইলামবাজারের ধরমপুর অঞ্চলে বুথভিত্তিক কর্মী সম্মেলন ছিল। সেখানে যোগ দেন বোলপুরের বিধায়ক তথা রাজ্যের ক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি এবং বস্ত্রশিল্প মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা (Chandranath Sinha)। সেখানে তাঁর মন্তব্য, “আগে যা করেছেন করেছেন, ভুলে যান৷ ২০২৪ সাল পর্যন্ত আপনাদের একটু নিয়ম মেনে চলতে হবে৷ দশ বছর রাজত্ব করতে গেলে দু’বছর রোজা রাখতে হবে, উপোস করতে হবে।” 

[আরও পড়ুন: ‘কলকাতায় আসছেন মিঠুনদা, যাবেন বিজেপি পার্টি অফিসেও’, দাবি সুকান্ত মজুমদারের]

এদিন মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা বলেন, “২০২৪ সাল পর্যন্ত আপনাদের একটি নিয়ম মেনে চলতে হবে। কোনও দুর্নীতি করবেন না। বুথের যারা দায়িত্বে আছেন, তাদের অনুরোধ করব, বুথের সব মানুষদের নিয়ে বসুন। আগেও এই কথা বলেছি, কিন্তু আপনারা শুনছেন না। তাই এবার শেষবারের মতো বলছি বুথের দায়িত্বে যারা আছেন, তারা সবার সঙ্গে বসুন। কাউকে অচ্ছুৎ করে রাখবেন না। ২০২৪ সালে যে লড়াই আসছে সেখানে যদি আমরা সবাই এক সঙ্গে না থাকতে পারি তারা (বিজেপি) কিন্তু আপনাদের মধ্যে ঢুকে কিস্তিমাত করে চলে যাবে। তখন কান্না ছাড়া আমাদের আর কিছু থাকবে না। তাই ১০ বছর রাজত্বের পর আবার সামনে ১০ বছর রাজত্ব করতে হলে আগামী দু’বছর মানে ২০২৪ সাল পর্যন্ত সমঝে চলতে হবে।” তাঁর কথায়, “মুখ্যমন্ত্রী যে ৭৪টা প্রকল্প করেছেন সেই প্রকল্পের সুবিধা যাতে মানুষ পায়, তার জন্য বাড়ি বাড়ি যান। দেখুন কারা এখনও পায়নি। এখানে কোনও দল দেখবেন না। কোনও বুথ সভাপতি যদি বেছে বেছে মানুষকে প্রকল্পের সুবিধা পাইয়ে দেন, তা হলে তার দায়িত্ব দল নেবে না। আমরা জানিয়ে দেব, ওই বুথ সভাপতি তৃণমূল দলের কেউ নয়।”

[আরও পড়ুন: ‘বাংলায় BJP কর্মীরা খুন হচ্ছেন’, জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠক থেকে তোপ মোদির]

এদিকে মন্ত্রীর এই বক্তব্য নিয়ে বিজেপির বোলপুর জেলা সাংগঠনিক সভাপতি সন্ন্যাসীচরণ মণ্ডলের প্রতিক্রিয়া, ”মন্ত্রী বুঝে গিয়েছেন সামনে পঞ্চায়েত এবং লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি ব্যাপক লড়াই দেবে। তাই দলের কর্মীরা যাতে দুর্নীতি না করেন, তার জন্য এই সতর্কবার্তা। এতে কোনও লাভ হবে না।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে