১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মিথ্যে মামলায় গ্রেপ্তার ও নির্যাতন, সিউড়ি আদালতে অভিযোগ ধৃতদের পরিবারের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 28, 2019 7:49 pm|    Updated: August 28, 2019 8:14 pm

Fake note racket busted, 2 accused arrested from rampurhat on 26 august

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: মিথ্যা মামলা সাজিয়ে দুই যুবককে গ্রেপ্তার ও তাদের উপর শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠল পুলিশের বিরুদ্ধে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই বুধবার সকালে উত্তেজনা ছড়ায় সিউড়ি আদালত চত্বরে। নির্যাতনের অভিযোগের সত্যতা যাচাই করতে বুধবার আদালতেই অভিযুক্তদের শারীরিক পরীক্ষা করেন চিকিৎসক। যদিও পরিকল্পনামাফিক পুলিশে বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে বলেই দাবি পুলিশ সুপারের।

[আরও পড়ুন:মিড-ডে মিলের গরম খিচুড়ি হাত ফসকে পায়ে, দগ্ধ তিন শিশু-সহ ৫]

ধৃতদের পরিবারের দাবি, ২৩ আগষ্ট রাত ৯ টা নাগাদ সাঁইথিয়া থানার কল্যাণপুরের বাড়ি থেকে আমোদপুর ফাঁড়ির আধিকারিক রঞ্জিত বাউড়ি, শেখ কেরিম ও শেখ জসিমউদ্দিন নামে দুজনকে বিনা অপরাধে তুলে নিয়ে যায়। অভিযোগ, পরের দিন পরিবারের সদস্যরা ধৃতদের সঙ্গে দেখা করতে সাঁইথিয়া থানায় গেলে তাঁদের দেখা করতে দেওয়া হয়নি। এরপর তিনদিন পেরিয়ে গেলেও ছেলের হদিশ পাননি বলেই দাবি করেন তাঁরা। বাধ্য হয়ে ছেলের খোঁজ পেতে সিউড়ি আদালতের দ্বারস্থ হন যুবকের পরিবারের সদস্যরা। তাঁদের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ সুপার ও ডিআইজিকে চিঠি পাঠায় আদালত। বিভিন্ন থানার সিসিটিভি ফুটেজও চেয়ে পাঠানো হয় আদালতের তরফে। এরপরই প্রকাশ্যে আসে অন্য তথ্য। জানা যায়, ২৩ আগষ্ট নয় ২৬ আগষ্ট জাল নোট-সহ ওই দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে রামপুরহাট থানার পুলিশ।

এরপর রামপুরহাট থানার তরফেই অভিযুক্তদের আদালতে পেশ করা হয়। ধৃতরা অভিযোগ করে আদালতে অমানবিক নির্যাতন করা হয়েছে তাঁদের উপর।অভিযুক্তদের শারীরিক পরীক্ষার জন্য সিউড়ি সদর হাসপাতাল থেকে চিকিৎসকদের ডেকে পাঠানো হয় আদালতের তরফে। এরপরই অভিযুক্ত ও চিকিৎসকদের গোপন জবানবন্দি নেওয়া হয়। এপ্রসঙ্গে সরকারি আইনজীবী কেশব দেওয়াশি জানান, “বিষয়টি এখনও বিচারাধীন। তাই এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করব না।” জেলা পুলিশ সুপার শ্যাম সিং জানান, “নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে আইননুগভাবেই অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পরিকল্পনামাফিক পুলিশের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে।” যদিও এ প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য করেননি অভিযুক্তে আইনজীবী।

ছবি: শান্তনু দাস

[আরও পড়ুন:জলদস্যুর হাত থেকে বাঁচতে মাঝসমুদ্রে ঝাঁপ, সাঁতার কেটে মৃত্যুঞ্জয়ী মৎস্যজীবী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে