২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অরিজিৎ গুপ্ত, হাওড়া: সার্কাসের তাবুতে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল হাওড়ার সলপ এলাকায়। সোমবার ভোররাতে আচমকাই সার্কাসের মূল তাঁবু দাউদাউ করে জ্বলে ওঠে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমদকলের দুটি ইঞ্জিন। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে দুটি কাকাতুয়ার।

পুজো মিটতেই শীত বঙ্গে প্রবেশের আগেভাগেই রাজ্যের বিভিন্ন এলাকাতেই পৌঁছে যায় সার্কাসের দল। এবছরও পুজো মিটতেই হাওড়ার সলপে এসেছিল এই সার্কাসের দলটি। মাঠের মধ্যে বেশ কয়েকটি তাঁবু ছিল তাঁদের। অন্যদিনের মতো রবিবারও গভীর রাত পর্যন্ত চলে সার্কাস। এরপর রাতে খাওয়াদাওয়া সেরে ঘুমিয়ে পড়েন সকলে। পরে রাত তিনটে নাগাদ সার্কাসের এক কর্মী দেখতে পান যে, তাঁদের মূল তাঁবু অর্থাৎ যেখানে সার্কাসের অধিকাংশ সামগ্রী রাখা থাকে সেটি দাউদাউ করে জ্বলছে। তিনি বিষয়টি সকলকে জানান। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের তিনটি ইঞ্জিন। দমকলের বেশ কিছুক্ষণের চেষ্টায় আয়ত্তে আসে আগুন। জানা গিয়েছে, মূল তাঁবুতে দুটি কাকাতুয়া ছিল। আগুনে ঝলসে মৃত্যু হয়েছে কাকাতুয়া দুটির। তবে কী থেকে এই অগ্নিকাণ্ড তা এখনও জানা যায়নি। দমকলের আধিকারিকদের অনুমান, কার্তিক পুজো উপলক্ষে শনিবার রাতে ওই এলাকায় প্রচুর বাজি পোড়ান হচ্ছিল। সেই বাজির আগুন কোনওভাবে ছিটকে এসেই সার্কাসের তাঁবুতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। তবে অগ্নিকাণ্ডের পিছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে দমকল সূত্রে খবর। 

[আরও পড়ুন:  বেশি দামে সবজি বিক্রি করলে কড়া ব্যবস্থা, হুগলিতে অভিযানে গিয়ে হুঁশিয়ারি EB কর্তাদের]

সার্কাস দলের ম্যানেজার বিপদভঞ্জন বিশ্বাস জানান, “পশুপাখি তেমন ছিল না। দুটি ঘোড়া ও দুটি কাকাতুয়া ছিল। কাকাতুয়া দুটির মৃত্যু হয়েছে। সার্কাসের বেশ কিছু সামগ্রী পুড়ে গিয়েছে। তবে মূল তাঁবুতে আগুন লাগলেও বাকি তাঁবুগুলি অক্ষত রয়েছে।” এদিনের অগ্নিকাণ্ড প্রসঙ্গে জেলা বনদপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, এবিষয়ে এখনও তাঁদের কাছে কোনও খবর নেই। খোঁজখবর নিয়ে দেখা হবে।

ছবি: অমিয় পাত্র

[আরও পড়ুন:  মানুষ একজোট হলে লাগু হবে না NRC, বিজেপির উদ্দেশে হুংকার কানহাইয়া কুমারের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং