১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

শিখরে বাংলা, প্রথম বাঙালি হিসাবে সাতটি শৃঙ্গ জয় সত্যরূপ সিদ্ধান্তর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 16, 2017 5:11 am|    Updated: December 16, 2017 10:27 am

First bengali civilian Satyarup Siddhanta hold record for mountaineering on seven summit

তন্ময় মুখোপাধ্যায়: শনিবার সকালে বাংলার শিখরপ্রাপ্তি। প্রথম অসামরিক বাঙালি হিসাবে সেভেন্থ সামিট অর্থাৎ দুনিয়ার সবকটি মহাদেশের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয় করলেন সত্যরূপ সিদ্ধান্ত। শনিবার সকাল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ এই বাঙালি পর্বতারোহী পৌঁছে যান অ্যান্টার্কটিকার চুড়ো ভিনসন ম্যাসিফে।

[বল হাতে ভেলকি আফ্রিদির, ১০-১০ ক্রিকেটে প্রথম হ্যাটট্রিক]

satyrup.jpg-record

সপ্তম শৃঙ্গ জয়ের লক্ষ্যে গত ৩০ নভেম্বর তিনি রওনা দেন। মুম্বই থেকে আমস্টারডাম হয়ে চিলি পৌঁছেন সত্যরূপ। সেখানে মিলিত হন দলের আরও চার অভিযাত্রীরা সঙ্গে।  এরপর ৭ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয় মূল অভিযান। অ্যান্টার্কটিকার ভিনসন ম্যাসিফে উঠার আগে আবহাওয়ার সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে কয়েক দিন যায়। এরপর চলে অনুশীলন। অ্যান্টার্কটিকার সর্বোচ্চ শৃঙ্গে ওঠার সময় আবহাওয়া ছিল বিরূপ। প্রায় -৫০ ডিগ্রি ঠান্ডার মধ্যেও সত্যরূপদের দল পৌঁছে যায় শৃঙ্গে। ঘড়িতে তখন ভারতীয় সময় সকাল সাড়ে পাঁচটা। অত্যন্ত ঝুঁকি নিয়ে তাঁরা এই অভিযান করেন। সত্যরূপদের কাছে খবর ছিল আবহাওয়া আরও খারাপ হতে পারে। তার জন্য শনিবারই তাঁরা শৃঙ্গ ছোঁয়ার সিদ্ধান্ত নেন। এই শৃঙ্গের উচ্চতা অন্যান্য শৃঙ্গের তুলনায় অনেকটাই কম। মাত্র ৪৮৯২ মিটার। বিশেষজ্ঞরা বলেন উচ্চতা কম হলেও প্রবল ঠান্ডার মোকাবিলা করাই পর্বতারোগীদের কাছে প্রধান চ্যালেঞ্জ। ভিনসন ম্যাসিফ জয় করেই থামেননি সত্যরূপ। এরপর ১১১ কিলোমিটার স্কি করে তিনি পৌঁছাবেন সাউথ পোলে। সাউথ পোল থেকে ফিরবেন চিলিতে। সেখানে তাঁর অনেক কাজ বাকি। সত্যরূপ এর পাড়ি দেবেন চিলির উচ্চতম পর্বত তথা বিশ্বের উচ্চতম জীবন্ত আগ্নেয়গিরিতে। ৬৮৯৩ মিটার দীর্ঘ এই পর্বত জয় করে সত্যরূপ কলকাতায় ফিরবেন আগামী ২২ জানুয়ারি।

সত্যরূপ 2

এবছর এই অভিযানের জন্য বিপুল খরচ হয়েছে সত্যরূপের। ছেলের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত মা গায়ত্রীদেবী জানালেন সেই লড়াইয়ের কাহিনি। তিনি বলেন এই অভিযানের জন্য প্রায় ৬৬ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে। বেশ কিছু বেসরকারি সংস্থা সাহায্য করলেও প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা সত্যরূপকে ঋণ নিতে হয়। ইএমআই গুনতে গুনতেই তিনি অভিযানে গিয়েছেন। এমনকী স্বপ্নপূরণের জন্য দিনে দুটি অফিসে কাজ করে অভিযানের টাকা সংগ্রহ করেছেন। শনিবার সকালে অ্যান্টার্কটিকার শিখরে ভারতের পতাকা তুলে সত্যরূপ বুঝিয়ে দেন তিনি স্বপ্ন সফলের জন্য অনেক দূর যেতে পারেন।

[চোরদের হাত থেকে রেহাই পেলেন না নেইমারও, খোয়া গেল জার্সি]

স 3

সত্যরূপের এই প্রাপ্তির দিনে বড় ভূমিকা রয়েছে তার ক্লাব সোনারপুর আরোহীর। এই সংস্থার উদ্যোগে গত বছর এভারেস্ট জয় করেছিলেন এই বাঙালি পর্বতারোগী। ওই অভিযানে তাঁর সঙ্গে ছিলেন রুদ্রপ্রসাদ হালদার। এভারেস্ট জয়ী রুদ্রপ্রসাদ আরোহীর সম্পাদক। রুদ্রর কথায়, ”২০১২ সালে আফ্রিকার কিলিমাঞ্জারো দিয়ে সত্যরূপ সপ্তশৃঙ্গ জয়ের দৌড় শুরু। তারপর এশিয়া, ইউরোপ, উত্তর ও দক্ষিন আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়ার সর্বোচ্চ শৄঙ্গ জয় করে। গত বছর আন্টার্কটিকায় ওর যাওয়ার কথা হলেও আর্থিক কারণে হয়নি। এবছর ওর স্বপ্নপূরণ হল”। সত্যরূপের লক্ষ্য আরও দূর, সে কথা জানিয়ে দিলেন তাঁর সহযোদ্ধা রুদ্রপ্রসাদ। রুদ্রর সংযোজন, ”সত্যরূপ এবার সাউথ পোল যাচ্ছেন। এরপর ওর পরিকল্পনা নর্থ পোল। নর্থ পোল জয় করলেও সত্যরূপ হবেন প্রথম বাঙালি যিনি মাউন্টেরানিং গ্র্যান্ডস্ল্যাম অনন্য নজির গড়বেন”। বেশ কয়েক বছর দিল্লিবাসী বাঙালি সত্যব্রত দাম সামরিক বাহিনীর প্রতিনিধি হিসাবে সেভেন সামিট জয় করেছিলেন। তাও একটা শূন্যতা ছিল। সেই অসামান্য কীর্তি এখন সত্যরূপের মুকুটে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে