BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

নদীর চরে ফুটবল খেলতে গিয়ে বজ্রাঘাতে মৃত ৩

Published by: Shammi Ara Huda |    Posted: August 19, 2018 6:40 pm|    Updated: August 19, 2018 6:40 pm

Ganga Sagar: Three football players died in playground by lightning

দেবব্রত মণ্ডল, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: রাজ্যে ফের বজ্রাঘাতে মৃত্যুর ঘটনা। নদীর চরে ফুটবল খেলতে গিয়ে বাজ পড়ে মৃত্যু হল তিনজনের। মৃতদের নাম বাপি দাস (৩০), বরুণ কবি (১৭) ও বুদ্ধদেব কবি (১৪)। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও চারজন। রবিবার দুপুরে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগর থানার মহিষামারি হাতিপিঠা এলাকায়।

[সীমান্ত লাগোয়া চা-বাগানে বাংলাদেশি দুষ্কৃতীদের তাণ্ডব, চিন্তায় প্রশাসন]

পুলিশ জানিয়েছে, ছুটির দুপুরে হাতিপিঠার নদীর চরে ফুটবল খেলা চলছিল। গ্রামের ছেলেরাই মধ্যমণি। সকাল থেকে জমতে থাকা মেঘ ততক্ষণে ফোটায় ফোটায় বৃষ্টি হয়ে ঝরতে শুরু করেছে। বৃষ্টির মধ্যে খেলা ভাল জমে। তাই কেউই মাঠ ছেড়ে যাননি। আচমকাই বিদ্যুৎ চমকের সঙ্গে গগন বিদারী আওয়াজ। অল্প কিছুক্ষণের পর চোখ খুলতেই দেখা যায় মাঠের মধ্যে থাকা তরুণদের প্রায় প্রত্যেকেই মাটিতে শুয়ে পড়ে আর্তচিৎকার করছেন। ততক্ষণে বজ্রপাতের শব্দে গ্রামের বাসিন্দারা ছুটে এসেছেন। তড়িঘড়ি বজ্রাঘাতে আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় রুদ্রনগর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। আহতদের পরীক্ষা করতে গিয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তিনজনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। বাকি ছ’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় চিকিৎসা শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে গ্রামের তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমেছে। মৃতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্যের দাবিতে বিধায়ক বঙ্কিম হাজরার দ্বারস্থ হয়েছেন বাসিন্দারা।

[ব্যক্তিগত আক্রমণে সায় ছিল না বাজপেয়ীর, স্মৃতিচারণে কৃষ্ণনগরের চূর্ণীলাল দত্তরা]

উল্লেখ্য, মাস দুয়েক আগে ক্রিকেট মাঠে বাজ পড়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছিল খাস কলকাতায়। এর জেরে এক তরুণ সম্ভাবনাময় ক্রিকেটারের মৃত্যু হয়। পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, নির্বিচারে গাছ কাটা ও দূষণের জেরে রাজ্যে বজ্রপাতের সম্ভাবনা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বিপদ। আকাশ কালো হয়ে মেঘ জমলেই ঘরের বাইরে থাকা আর নিরাপদ নয়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে