BREAKING NEWS

১৩ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘দলে থেকে বিশ্বাসঘাতকতা করলে সহ্য করব না’, কর্মিসভা থেকে হুঁশিয়ারি তৃণমূল সাংসদের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 18, 2020 7:23 pm|    Updated: October 18, 2020 7:28 pm

An Images

শাহাজাদ হোসেন, ফরাক্কা: একুশের নির্বাচনের আগে দলকে চাঙ্গা করতে ময়দানে নামলেন মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) তৃণমূল সভাপতি তথা সাংসদ আবু তাহের খান। কড়া ভাষায় কর্মীদের বুঝিয়ে দিলেন, দলে থেকে বিশ্বাস ঘাতকতা করলে তা কোনওভাবে বরদাস্ত করা হবে না। বিধানসভা ভোটে জয় নিশ্চিত করতে পরিশ্রমের পরামর্শও দিলেন।

রবিবার দুপুরে ফরাক্কার বল্লালপুর কিষাণ মান্ডিতে বিধানসভার বুথ ভিওিক কর্মিসভায় যোগ দিয়েছিলেন জেলা সভাপতি আবু তাহের, পূর্ত দপ্তরের কর্মাধ্যক্ষ রাজীব হোসেন-সহ দলের একাধিক নেতা। সেই সভা থেকেই কর্মীদের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন রাজীব হোসেন। সকলকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দেন। ফরাক্কা ব্লকে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে জর্জরিত তৃণমূল কংগ্রেসের সাংগঠনিক দুর্বলতার কথা তুলে সরব হন। বলেন, “বিরোধীরা মুর্শিদাবাদ জেলায় যেখানে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারছে না, সেখানে ফরাক্কায় সুযোগ পাচ্ছে। কেন তা ভাবতে হবে আমাদের।” কর্মীদের একাংশকে ভর্ৎসনা করে আবু তাহের খান বলেন, “তৃণমূল কংগ্রেসে থেকে দলের সঙ্গে বিশ্বাস ঘাতকতা যাঁরা করবেন তাঁদের জায়গা দলে হবে না। তৃণমূল কংগ্রেসের তকমা নিয়ে মঞ্চে বসে কংগ্রেস, সিপিআইএম ও বিজেপির দালালি করবেন এটা বরদাস্ত করব না। আপনারা সাবধান হন। এমন কোনও কাজ করবেন না, যে কাজে বুথ স্তরের কর্মীরা দুঃখ পান। ২০২১ সালে জেলার বাইশটি আসন দলনেএীকে উপহার দেব। জোড়া ফুল ছাড়া আর কোনও ফুল মুর্শিদাবাদে ফুটবে না।”

[আরও পড়ুন: ভাটপাড়ায় কঙ্কালকাণ্ড! সাতসকালে আবর্জনাস্তূপ থেকে খুলি, হাড় উদ্ধারের তীব্র চাঞ্চল্য]

ফরাক্কার ৯ টি গ্রামপঞ্চায়েতের মধ্যে সাতটি তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে। পঞ্চায়েত সমিতি তৃণমূলের দখলে। জেলা পরিষদের তিনটি আসনের মধ্যে দুটি তাঁদের দখলে। তবে গত লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস, বিজেপির থেকে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অনেক পিছিয়ে পড়েছিল। কেন এমনটা হল, এদিন তার উত্তর চান আবু তাহের। বলেন, ফরাক্কার এই রাজনীতি বরদাস্ত করা যাবে না। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বিরোধীদের এক ইঞ্চি জমি ছাড়া হবে না বলেও এদিন সাফ জানান তিনি। মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমুল কংগ্রেসের কো – অডিনেটার সাংসদ খলিলুর রহমান বলেন, “আমাদের নেতৃত্বের মধ্যে সমন্বয়ের অভাব রয়েছে। সেটা মেটাতে হবে। নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি দূর করতে হবে। বিজেপিকে আটকাতে তৃণমূল কংগ্রেসকে ভোট দিতে হবে। ২০২১-এ তৃণমূল কংগ্রেসকে এককভাবে ক্ষমতায় আনার শপথ নিতে হবে।” প্রাক্তন মন্ত্রী হুমায়ন কবির আগামী নির্বাচনে ফরাক্কা বিধানসভা তৃণমূলকে জিতিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে উপহার দেওয়ার আহ্বান জানান।

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত ‘কুমারী’, মালদহ রামকৃষ্ণ মিশনের ঐতিহ্যবাহী পুজো নিয়ে অনিশ্চয়তা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement