১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আগামী মাসেই আপার প্রাইমারিতে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু, অনলাইনে ইন্টারভিউ?

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 22, 2021 5:50 pm|    Updated: June 22, 2021 6:51 pm

Interview process of Upper Primary teachers will begin on July 5, according to the sources | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

কলহার মুখোপাধ্যায়: রাজ্যে আপার প্রাইমারি (Upper Primary) অর্থাৎ অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউয়ের জন্য প্রায় ২০ হাজার প্রার্থীর নাম প্রকাশিত হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। উচ্চ আদালতের নির্দেশে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে এই নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার কথা। তাই দ্রুতগতিতে কাজ চলছে। ইন্টারভিউয়ের (Interview) বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর এবার সেই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ভাবী শিক্ষকদের চূড়ান্ত প্রার্থীতালিকা তৈরির পালা। সূত্রের খবর, ৫ জুলাই থেকে শুরু হয়ে যাবে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া। তবে তা অনলাইনে হবে নাকি অফলাইনে – সেই সিদ্ধান্ত এখনও জানানো হয়নি। মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শক্রমে তা চূড়ান্ত করতে পারেন শিক্ষামন্ত্রী।

সোমবার প্রকাশিত হয়েছে উচ্চ প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের জন্য SSC-তে সফল প্রার্থীদের ইন্টারভিউয়ের তালিকা। স্কুল সার্ভিস কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আপার প্রাইমারি স্তরে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার টেট স্কোর ও অ্যাকাডেমিক স্কোর মেধার ভিত্তিতে মোট ১৪,৩৩৯ শূন্যপদে ১:৪ অনুপাতে প্রায় ২০,০৭৪ জন প্রার্থীকে যোগ্য বলে বিবেচনা করে ইন্টারভিউ তালিকায় নাম রাখা হয়েছে। জানা যাচ্ছে, তাঁদের ইন্টারভিউ নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হবে জুলাইয়ের গোড়াতেই। কিন্তু করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতিতে রাজ্যে কঠোর বিধিনিষেধ জারি জুলাইয়ের ১ তারিখ পর্যন্ত। তারপর কি এর মেয়াদ আরও বাড়বে? নাকি সবই শিথিল হয়ে যাবে? এও জানা নেই। ফলে এই পরিস্থিতিতে প্রার্থীদের ইন্টারভিউ অফলাইন নাকি অনলাইনে হবে, তা এখনও ঠিক করা যায়নি। জানা যাচ্ছে, অনলাইনে ইন্টারভিউতে বিশেষ সায় নেই শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর।

[আরও পড়ুন: বকেয়া ফি, পড়ুুয়াদের অনলাইন পরীক্ষায় বসতে দিল না স্কুল! ব্যাপক উত্তেজনা দুর্গাপুরে]

রাজ্যে প্রাথমিক (Primary) শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে ইতিমধ্যেই। চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রস্তুত। এখানে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া হয়েছে অফলাইনেই। করোনাকালেও জেলাস্তরে ছোট ছোট ক্যাম্প করে চলেছে প্রক্রিয়া। এবার উচ্চ প্রাথমিকেও কি তেমনই হবে? সেক্ষেত্রে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করা প্রায় অসম্ভব। আর তা যদি না হয়, তাহলে হাই কোর্টের নির্দেশ অমান্য হলে আদালত অবমাননার দায়ে পড়তে হবে রাজ্য সরকারকে। সূত্রের খবর, আরও খানিকটা সময় চেয়ে স্কুল সার্ভিস কমিশনের কর্তারা আদালতের দ্বারস্থ হতে পারেন। সবমিলিয়ে, পুজোর আগে রাজ্যে যে ২৪ হাজারের বেশি শিক্ষক নিয়োগ হওয়ার ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী, সেই প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে মরিয়া এসএসসি।

[আরও পড়ুন: কালিয়াচক হত্যাকাণ্ড: সেক্সচ্যাটে বুঁদ আসিফ, করত ব্ল্যাকমেলও! ল্যাপটপে মিলল সূত্র]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে