১০  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

টাকা চেয়ে প্রেমিকাকে মারধর, কাঠগড়ায় কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল

Published by: Tanujit Das |    Posted: October 6, 2018 4:13 pm|    Updated: October 6, 2018 4:13 pm

Kolkata police constable tortures girlfriend for dowry

শংকরকুমার রায়, রায়গঞ্জ: কুড়ি লক্ষ টাকা পণের দাবিতে প্রাক্তন প্রেমিকার উপর অত্যাচারের অভিযোগ উঠল কলকাতা পুলিশের এক কনস্টেবল ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে৷ রায়গঞ্জের বাসিন্দা ওই অভিযুক্তের নাম আকবর সিদ্দিকি ওরফে পিন্টু৷ ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে নির্যাতিতার পরিবার৷ অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ৷

[মেয়ের সম্মান বাঁচাতে গিয়ে ইভটিজারের হাতে আক্রান্ত বাবা]

জানা গিয়েছে, অভিযোগকারিনী মেয়েটির বাড়ি জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জের সাহেবপুরে৷ মেয়েটির সঙ্গে দু’বছর ধরে প্রেম করছিল অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল৷অভিযোগ, বিভিন্ন সময়ে মেয়েটির সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কেও লিপ্ত হয় সে৷ মেয়েটির অভিযোগ, এরপর বিয়ের কথা উঠলেই অভিযুক্তের বাড়ির তরফ থেকে তাঁদের কাছে কুড়ি লক্ষ টাকা পণ চাওয়া হয়৷ যা দিতে অস্বীকার করেন তিনি ও তাঁর বাড়ির লোকেরা৷ ফলে বিয়ে ভেঙে যায়৷ এমনকী, মেয়েটির অন্যত্র বিয়ে ঠিক হলে ষড়যন্ত্র করে তাও ভেঙে দেন অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল ও তার বাড়ির লোকেরা৷ এরপর, ১ অক্টোবর মেয়েটিকে নিজেদের বাড়িতে ডেকে পাঠায় অভিযুক্তের পরিবারের সদস্যরা৷ কিন্তু নির্যাতিতা ওই দিন তাদের বাড়িতে আসতে পারেননি৷  শুক্রবার ছেলেটির বাড়িতে যান ওই তরুণী৷ পুলিশকে দেওয়া বয়ানে মেয়েটি জানায়, শুক্রবার রাতেই তাঁর উপর চড়াও হয় ছেলের বাড়ির লোকেরা৷ ছেলেটির মা ও ভাই তাঁর গলায় কাপড়ের ফাঁস দিয়ে অত্যাচার করে৷ কোনওক্রমে তাঁকে উদ্ধার করে ইসলামপুর হাসপাতালে ভরতি করেন পাড়ার লোকেরা৷ এখনও সেখানেই চিকিৎসা চলছে তাঁর৷ মেয়েটির পরিবার সূত্রে খবর, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় তাঁরা অভিযোগ করেছেন৷ ওই কনস্টেবল ঘটনাস্থলে না থাকলেও দায়ের করা অভিযোগপত্রে তারও নাম রয়েছে৷ পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল ও তার পরিবারের সদস্যদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে৷

[নাবালিকাকে বিয়ে! পুলিশের ভয়ে আসর ছেড়ে পালাল বর]

পাশাপাশি, ছাত্রীকে ধর্ষণ করে সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে৷ ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুরের ডালখোলায়৷ জানা গিয়েছে, নির্যাতিতা ডালখোলা হাইস্কুলের পড়ুয়া৷ চলতি বছর সে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছে৷ অভিযুক্ত গৃহশিক্ষকের কাছেও প্রাইভেট টিউশন পড়ত সে৷ ছাত্রীর অভিযোগ, বাড়িতে ডেকে তাঁর উপরে অত্যাচার চালায় ওই অভিযুক্ত শিক্ষক এবং সেই ছবি তোলে তারই এক বন্ধু৷ পরে সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয় শিক্ষক ও তাঁর বন্ধু৷ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষককে ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করেছে ডালখোলা থানার পুলিশ৷ বন্ধুর খোঁজে তল্লাশি চলছে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে