Advertisement
Advertisement
leoprad

মালবাজারে চলন্ত বাইকে ঝাঁপিয়ে পড়ল চিতাবাঘ, তারপর…

মালবাজারে আতঙ্কে কাঠ এলাকাবাসী।

Leopard Jumped on bike left rider injured in Malbazar | Sangbad Pratidin

প্রতীকী ছবি।

Published by: Paramita Paul
  • Posted:July 10, 2022 9:45 am
  • Updated:July 10, 2022 9:47 am

অরূপ বসাক, মালবাজার: চলন্ত বাইকের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ল চিতাবাঘ (Leopard)। আক্রমণ চালায় বাইক সওয়ারির উপর। আঁচড়ে রক্তাক্ত করে দেয় বাইক সওয়ারিকে। শনিবার রাতে ভয়াবহ ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ি জেলার মালবাজার ((Malbazar) এলাকায়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বাইক সওয়ারি। এলাকায় তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

মালবাজার মহকুমার বামনডাঙ্গা থেকে নাগরাকাটা আসার পথে ডায়না লাইনের কাছে চলন্ত বাইকের উপর আক্রমণ করে চিতাবাঘ। জানা গিয়েছে, রাত আটটা নাগাদ বিজয়প্রতাপ সিং চাবাগান এলাকার রেশন ডিলার প্রেম মিত্তালের বাইকের পিছনে বসে নাগরাকাটায় যাচ্ছিলেন। সেই সময় ডায়না লাইনের কাছে জঙ্গলের রাস্তায় পিছন থেকে বাইকের উপর ঝাঁপ দেয় চিতাবাঘটি। অতর্কিত হামলায় হকচকিয়ে যায় দুজনই।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘আমি হলে ওকে টি-২০ দলে রাখতাম না’, কোহলিকে নিয়ে অসন্তুষ্ট অজয় জাদেজা]

হানার পরই দু’জনই বাইক নিয়ে রাস্তার নিচে পড়ে যায়। বিজয়ের মাথায়-হাতে-পিঠে আঁচড় দেয় বাঘটি। এরপরই চিতাবাঘটি লাফ দিয়ে ফের জঙ্গলে ঢুকে যায়। স্থানীয় বাসিন্দারা বিজয়কে উদ্ধার করে সুলকাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে সেখানেই তাঁর চিকিৎসা চলছে। এই ঘটনার পর এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। খুনিয়া রেঞ্জের রেঞ্জার প্রদ্যুত সরকার বলেন,”আহতদের চিকিৎসার খরচ বনদপ্তর গ্রহণ করবে।”

Advertisement

নাগরাকাটার বামনডাঙ্গা এলাকায় চিতাবাঘের উৎপাত নতুন কিছু নয়। কখনও গৃহস্থের বাড়িতে তো কখনও আবার স্কুলের ভিকর ঢুকে বসে থাকে তারা। এমনকী, বাড়ি থেকে ছোট বাচ্চাদেরও টেনে নিয়ে যায়। প্রাণ বাঁচাতে রীতিমতো লড়াই করতে হয়। 

[আরও পড়ুন: লুটের উদ্দেশ্যে খুন? পুরুলিয়ায় বাবা-ছেলের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার, প্রতিবাদে অবরুদ্ধ জাতীয় সড়ক]

গত মার্চে একইধরনের ঘটনা ঘটেছিল  নাগরাকাটা ব্লকের বামনডাঙ্গা চা বাগান এলাকায়। সেখানকার বাসিন্দা সুরজ লোহারা সাইকেলে করে ছেলেকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় আচমকা পিছন থেকে হামলা চালায় একটি পূর্ণবয়স্ক চিতাবাঘ। রাস্তার মধ্যে ছিটকে পড়ে সুরজ ও ছেলে অনুষ। সেইসময় সুরজের ছেলের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে চিতাবাঘটি। ৫ বছরের ছেলে অনুষের প্রাণ বাঁচাতে চিতাবাঘের সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু করে দেয় সুরজ। বেশ কিছুক্ষণ চিতাবাঘের সঙ্গে লড়াই চলে সুরজের। সুরজের সঙ্গে লড়াইয়ের পর অবশেষে চিতাবাঘটি চাবাগানেরর ঝোপে পালিয়ে যায়। গুরুতর জখম অবস্থায় রাতে সুরজকে নিয়ে যাওয়া হয় সুলকাপাড়া গ্রামীণ হাসপাতালে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ