Advertisement
Advertisement
Mamata Banerjee

‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে হাত লাগালে হাঁড়ি-কড়াইয়ের খেলা হবে’, হুঁশিয়ারি মমতার

বিজেপি জিতলেই রাজ্যে বন্ধ হবে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার, গেরুয়া শিবির থেকে বারবার এমন হুঁশিয়ারি আসছে বলেই দাবি তৃণমূলের। তবে মমতা-অভিষেকের গ্যারান্টি, লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের মতো প্রকল্প কোনওদিন বন্ধ হবে না। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের নির্বাচনী প্রচার মঞ্চ থেকে এই আশ্বাস দিয়েছেন তাঁরা। বুধবার চুঁচুড়ার জনসভা থেকে এবার পালটা হুঁশিয়ারি মমতার।

Lok Sabha 2024: Mamata Banerjee warns BJP in Lakshmir Bhandar scheme is affected

চুঁচুড়ার জনসভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজস্ব চিত্র

Published by: Sayani Sen
  • Posted:May 15, 2024 4:02 pm
  • Updated:May 15, 2024 4:25 pm

সুমন করাতি, হুগলি: বিজেপি জিতলেই রাজ্যে বন্ধ হবে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার, গেরুয়া শিবির থেকে বারবার এমন হুঁশিয়ারি আসছে বলেই দাবি তৃণমূলের। তবে মমতা-অভিষেকের গ্যারান্টি, লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের মতো প্রকল্প কোনওদিন বন্ধ হবে না। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের নির্বাচনী প্রচার মঞ্চ থেকে এই আশ্বাস দিয়েছেন তাঁরা। বুধবার চুঁচুড়ার জনসভা থেকে এবার পালটা হুঁশিয়ারি মমতার।

এদিন মমতা (Mamata Banerjee) বলেন, “তৃণমূল কোনওদিন বাংলায় হারবে না। কোনও বিজেপি নেতার ঠাকুরদার ক্ষমতা নেই লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ করার। লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে কেউ হাত লাগালে খুন্তি, হাঁড়ি, কড়ার খেলা হবে। জানে না বাংলা অন্যরকম। মা-বোনেরা জোট বাঁধলে ওদের বদলে দিতে বেশি সময় লাগবে না।’’ উল্লেখ্য, এর আগে একাধিক জনসভায় কোচবিহারের বিজেপি নেত্রী দীপা চক্রবর্তীর অডিও বার্তা শোনান অভিষেক। ওই অডিও বার্তায় লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ হয়ে যাবে বলতে শোনা গিয়েছে তাঁকে। বিজেপি নেত্রী বলেছেন, “ভোটে বিজেপি জিতলে ৩ মাসের মধ্যে রাজ্য সরকার পড়ে যাবে। লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বেশিদিন চলবে না। লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধ হয়ে যাবে।” অডিও বার্তা শুনিয়ে জবাবও দেন অভিষেক। এবার লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নিয়ে পালটা হুঁশিয়ারির সুর মমতার গলাতেও।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ভিড় বাসে তরুণীর স্তন নিয়ে মশগুল প্রেমিক! নেটদুনিয়ায় ঢেউ তুলছে ওড়িশার ভিডিও]

এদিনের নির্বাচনী প্রচারমঞ্চ থেকে সিএএ এবং এনআরসি ইস্যুতেও সুর চড়ান মমতা। বিজেপিকে আক্রমণ করে তিনি আরও বলেন, ‘‘বিজেপি দেশটাকে জেলে ভরে দিয়েছে। নিজেরা দেশের টাকা লুট করছে। চোর ডাকাতদের নিজেদের ওয়াশিং মেশিনে ঢুকিয়েছে। বিজেপির মতো চোর পার্টি একটাও নেই। সারা দেশ বুঝতে পারছে চিজ ক্যায়া হ্যায়। সারা বিশ্ব বুঝতে পারছে কী চলছে দেশে। চার দফায় বিজেপি হারছে। বাকি তিন দফাতেও হারবে। জুমলাবাজি করেও জিততে পারবে না। বিজেপি বাংলাকে চায় না। বাংলাকে ভালবাসে না। বিজেপির জেতার অঙ্ক নেই। সন্দেশখালির চক্রান্ত দেখলেন তো। চক্রান্ত করে রেগে যাচ্ছে। যা খুশি করে জিততে চাইছে বিজেপি।’’

Advertisement

মোদিকে সরাসরি ‘প্রচারবাবু’ বলে কটাক্ষ করে তাঁর আক্রমণ, ‘‘বিজেপি কোনও কাজ করেনি। জিতলে ১৫ লক্ষ দেবে বলেছিল বিজেপি, কিন্তু দেয়নি। এই সব মোদীর ভাঁওতা। চাকরিও দেওয়া হয়নি ছেলেমেয়েদের। টোটালটাই ভাঁওতা। আমি ওঁর নাম দিয়েছি প্রচারবাবু। নিজের প্রচার ছাড়া কিছু চায় না। যে কোনও পোশাক পরে ছবি তুলে ফেলবেন। ছবি তুলতে আর প্রচার করতে ভালোবাসেন।’’ এই সভা শেষে হাওড়ার ইছাপুরে রোড শো করেন মমতা।

[আরও পড়ুন: ফের মেট্রোয় আত্মহত্যা, অফিস টাইমে বিঘ্নিত যাত্রী পরিষেবা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ