৪ আশ্বিন  ১৪২৬  রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  সাঁকরাইলের রানিহাটি বাজারে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়। পুড়ে ছাই প্রায় ২০ টি মাছ ও সবজির দোকান। জানা গিয়েছে, আগুন নিয়ন্ত্রণে আসতেই বাজারে মজুত এলপিজি সিলিন্ডার ফেটে যায়। বিস্ফোরণের তীব্রতায় আহত হন ৪ জন দমকল কর্মী। আহতরা হাওড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। 

[আরও পড়ুন: সন্ত্রাস অব্যাহত বারাকপুর এলাকায়, কাঁকিনাড়ায় এলোপাথাড়ি গুলিতে খুন বিজেপি কর্মী]

জানা গিয়েছে, রবিবার রাত দেড়টা নাগাদ হঠাৎই আগুন লেগে যায় হাওড়ার সাঁকরাইলেই রানিহাটি মাছ বাজারে। মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। ধোঁয়ায় ঢেকে যায় এলাকা। গভীর রাতে আগুন লাগায় বিষয়টি সকলের নজরে পড়তেও বেশ কিছুক্ষণ সময় কেটে যায়। ততক্ষণে পুড়ে ছাই বাজারের প্রায় ২০ টি দোকান। এরপর খবর পেয়ে আলমপুর থেকে দমকলের তিনটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে যায়। প্রায় ১ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন। তবে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর ফের বিপত্তি। দমকল সূ্ত্রে জানা গিয়েছে, আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর হঠাৎই বাজারে মজুত থাকা এলপিজি সিলিন্ডারগুলিতে  বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের তীব্রতায় আহত হন চারজন দমকল কর্মী। আহতদের নাম অয়ন ঘোষ, কুন্তল হাজরা, সৌমিক নাথ, বিশ্বজিৎ হালদার। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁদের উদ্ধার করে হাওড়া হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন তাঁরা। 

[আরও পড়ুন: বল ভেবে বোমা নিয়ে খেলতে গিয়ে বিস্ফোরণে মৃত শিশু, চাঞ্চল্য হাড়োয়ায়]

প্রাথমিক তদন্তে দমকল কর্মীদের অনুমান, শট সার্কিট থেকেই এদিন প্রথমে রানিহাটি বাজারে আগুন লাগে। যদিও আদৌ শট সার্কিট থেকেই অগ্নিকাণ্ড কিনা, তা তদন্তসাপেক্ষ। পাশপাশি, ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে থাকে আগুন। বর্তমানে স্বাভাবিক পরিস্থিতি। তবে গতকাল রাতের আতঙ্ক এখনও তাড়া করছে ব্যবসায়ী ও স্থানীয় বাসিন্দাদের। আগুনে ভস্মীভূত দোকান মালিকদের মাথায় হাত। কী হবে ভবিষ্যৎ, তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ব্যবসায়ীরা।         

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং