৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

নিজস্ব সংবাদদাতা, তেহট্ট: পুলওয়ামায় শহিদ নদিয়ার সুদীপ বিশ্বাসের পরিবারের পাশে দাঁড়াল মুম্বইয়ের একটি ওষুধ কোম্পানি। শনিবার নিহত জওয়ানের বাড়িতে যান ওষুধ কোম্পানির সদস্যরা। সেখানে শহিদের বাবা ও মায়ের হাতে ৫ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেন তাঁরা। 

[ বই খুলে পরীক্ষা, ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই বিতর্ক]

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় মৃত ৪৯ জওয়ানের মধ্যেই ছিলেন এরাজ্যের দুই জওয়ান। তাদের মধ্যে একজন তেহট্টের সুদীপ বিশ্বাস। সন্তানের মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসতেই কান্নায় ভেঙে পড়েছিল পরিবার। প্রথম থেকেই শহিদের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছিল সরকার। আর্থিক সাহায্যও করা হয়েছে নিহতের পরিবারকে। এবার শহিদ সুদীপ বিশ্বাসের পাশে দাঁড়াল মুম্বইয়ের এতটি স্বনামধন্য একটি ওষুধ কোম্পানি। তাদের তরফে শনিবার জওয়ানের বাবা সন্ন্যাসী বিশ্বাস ও মা মমতা বিশ্বাসের হাতে পাঁচ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেওয়া হয়।

[ শখের বশে বাইক চুরি, পুলিশের জালে ২ ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া ]

তবে আর্থিক সহায়তা পেলেও তাতে সন্তুষ্ট নন শহিদের পরিবার। কারণ, তাঁরা শত্রু নিধনের খতিয়ান দেখতে চান। ওষুধ কোম্পানির সদস্যরা চলে যাওয়ার পর মৃত জওয়ানের বোন বলেন, পাকিস্তানের এত ক্ষয়ক্ষতির কথা বলা হচ্ছে, তা আমার দেখতে পাচ্ছি না কেন? এর প্রমাণই বা কোথায়? তিনি বলেন, পাকিস্তানের জঙ্গিদের ওপর ভারতের হানা ও তাদের ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে প্রমাণ দিক সরকার, তবেই শান্তি মিলবে শহিদ পরিবারের। এর আগেও পুলওয়ামা কাণ্ডের পালটা হামলার দাবিতে সোচ্চার হয়েছিলেন ওই জওয়ানের বোন। আজও তার কন্ঠে একই কথা। মৃতের পরিবারের এখন একটাই দাবি, জওয়ানদের নিরাপত্তায় যথাযথ ব্যবস্থা নিক প্রশাসন। সূত্রের খবর, শুধু সুদীপ বিশ্বাস নন, পুলওয়ামায় মৃত সকল জওয়ানের পরিবারকেই ৫ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য করবে মুম্বইয়ের ওই সংস্থাটি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং