BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফের করোনার থাবা পূর্ব বর্ধমানে, আক্রান্ত কলকাতা ফেরত যুবক

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 8, 2020 7:51 pm|    Updated: May 8, 2020 7:54 pm

An Images

ফাইল ফটো

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: খণ্ডঘোষ, বর্ধমানের পর এবার মেমারি। ফের করোনা (Corona Virus) আক্রান্তের সন্ধান মিলল পূর্ব বর্ধমানে। শুক্রবার মেমারি পুরসভার সোমেশ্বরতলার বাসিন্দা বছর বাইশের এক যুবকের কোভিড-১৯ পরীক্ষার রিপোর্ট আসতেই জানা যায়, তিনি আক্রান্ত। সঙ্গে সঙ্গে ওই যুবককে দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। আক্রান্তের বাবা, মা, দিদি, বাবার এক বন্ধু ও এক অ্যাম্বুল্যান্স চালককেও কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, “মেমারির ওই এলাকা সিল করা হয়েছে। কেউ ওই এলাকায় ঢুকতে পারবেন না।”

জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রণবকুমার রায় জানান, মেমারির একজনের করোনা পজিটিভ এসেছে। ওই যুবকের সরাসরি সংস্পর্শে আসা ৫ জনকে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে। সেকেন্ডারি কনট্যাক্টে কারা এসেছিলেন তাঁদেরও চিহ্নিত করা হচ্ছে। জেলাশাসক বলেন, “এদিন পর্যন্ত জেলায় ২ জন করোনা পজিটিভ রয়েছেন। একজন বর্ধমান শহরের ও অন্যজন মেমারির। ২ জনই সনকায় ভরতি। আগে খণ্ডঘোষের ২ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন। তাঁরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এখন জেলায় কনটেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়ে তিন হয়েছে। তবে খণ্ডঘোষের কনটেইনমেন্টের সময়সীমা ২১ দিন অতিক্রান্ত হওয়ার পথে।”

[আরও পড়ুন: লকডাউন অগ্রাহ্য করে খুলল সেলুন, পুলিশের ভূমিকায় অসন্তষ্ট ব্যবসায়ীদের একাংশ]

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, মেমারির আক্রান্ত ওই যুবক কিডনির সমস্যা নিয়ে কলকাতার বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি ছিলেন। ৬ মে সেখান থেকে তাঁকে ছুটি দেওয়া হয়। তার আগে ৫ মে কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য নমুনা নেওয়া হয়েছিল তাঁর। শুক্রবার সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপরই আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। কিন্তু নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট মেলার আগে কেন ছুটি দেওয়া হল ওই যুবককে, তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

[আরও পড়ুন: সংসারে ফিরে যাওয়ার শাস্তি! স্বামীর সামনেই প্রেমিকের হাতে নৃশংসভাবে খুন বধূ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement