৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘শলাকা’ দেখিয়ে ভোট করানোর নিদান, আবারও বিতর্কে অনুব্রত মণ্ডল

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 5, 2019 9:59 am|    Updated: April 22, 2019 4:13 pm

An Images

ভাস্কর মুখোপাধ্যায়, বোলপুর: গুড়-বাতাসা, পাচন ও নকুলদানার পর আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের নয়া দাওয়াই, শলাকা বা ধূপকাঠি৷ এবার শলাকা নিয়ে বুথের সামনে তৃণমূল কর্মীদের দাঁড়ানোর ফরমান জারি করলেন অনুব্রত মণ্ডল। বৃহস্পতিবার বোলপুরের ডাকবাংলো মাঠে প্রার্থী অসিত মালের সমর্থনে আয়োজিত জনসভায় তৃণমূলের বীরভূম জেলার সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “বুথের যাঁরা কর্মী আছেন, তাঁরা বুথের বাইরে দাঁড়িয়ে থাকবেন শলাকা নিয়ে। সেই শলাকা দেখিয়ে ভোট করিয়ে নেবেন।”

[ আরও পড়ুন:  রাজ্যের আপত্তিকে পাত্তা না দিয়ে জঙ্গলমহল থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনী সরাল কমিশন  ]

বোলপুরের স্থানীয় গ্রামবাসীরা ধূপকাঠিকে শলাকা বলেন। এই ‘শলাকা’কে ঘিরেই এবার নতুন করে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। বৃহস্পতিবার বোলপুরের তৃণমূল প্রার্থী অসিত মালের সমর্থনে বোলপুরের ডাকবাংলো মাঠ এবং নানুরের বাসাপাড়ায় পর পর দুটি জনসভায় প্রধান বক্তা ছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। এই সভা থেকে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “পশ্চিমবাংলায় উন্নয়নের পক্ষে ভোট হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গত ৮ বছরে শহর এবং গ্রামে যে উন্নয়ন করেছেন, সাধারণ মানুষ সেজন্য তৃণমূল প্রার্থীকে ভোট দেবেন। বীরভূম, বোলপুর কেন্দ্রে ১৪ লক্ষ পোলিং হবে। আমরা ১২ লক্ষ ভোট পাব। কেউ যদি বাড়াবাড়ি করেন, বাইরে দাঁড়িয়ে থাকবেন, অসুবিধা হবে না। আপনারা জানেন কীভাবে ভোট করিয়ে নিতে হয়।” পরে সাংবাদিক সম্মেলনে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “বুথ কর্মীরা বুথের বাইরে দাঁড়িয়ে থাকবেন শলাকা নিয়ে। সেই শলাকা দেখিয়ে ভোট করিয়ে নেবেন। শলাকা ভাল জিনিস, শলাকা কাঠি। কিন্তু কীসের কাঠি বলতে পারব না। যাঁদের দেখাবার, তাঁদের শলাকা দেখিয়ে দেবেন।”

[ আরও পড়ুন:  ভোটের আগেই জয়োল্লাস! বাজনার তালে কোমর দোলালেন তৃণমূল বিধায়ক ]

তিনি আরও বলেন, “বিজেপি প্রার্থী ভাল ঢোল বাজাতে পারেন দেখছি। তৃণমূলের বিজয় উৎসবে তাঁকে বায়না দিয়ে দেব, বাজাবেন। আর রামচন্দ্র ডোম হারের হ্যাটট্রিক করার জন্য দাঁড়িয়েছেন, হ্যাটট্রিক করবেন।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement