BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াই বুথ দখল রুখবে মানুষ, মেদিনীপুরের সভা থেকে চ্যালেঞ্জ রূপার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 28, 2019 9:43 pm|    Updated: April 28, 2019 9:43 pm

An Images

সম্যক খান, মেদিনীপুর: এবারের ভোটে কোনও বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকুক বা না থাকুক, মানুষ প্রতিরোধ করবে বলে মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ তথা মহিলা মোর্চা সভানেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। রবিবার শালবনির সাতপাটি ও পিড়াকাটায় মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী দিলীপ ঘোষের সমর্থনে প্রচারে এসে তিনি বলেন, কোন কোন বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে তা অনেক কিছু রিপোর্টের উপর নির্ভর করে। তবে এবার কেউ কিছু ঘটানোর চেষ্টা করলে, মানুষই তার প্রতিরোধ করবে।

[আরও পড়ুন : নানা রঙের রাজনীতিতে অটুট ‘বন্ধুত্ব’, কেরলের পর বর্ধমানেও সৌজন্যের ছবি]

রবিবার শালবনির বাগমারি থেকে রোড শো শুরু করেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। সেই রোড শো পাথরকুমকুমি, মৌপাল, সাতপাটি হয়ে পিড়াকাটা পর্যন্ত পৌঁছায়। মাঝেমাঝে জনতার উদ্দেশে বক্তব্যও রাখেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়৷ এদিন তার সঙ্গী ছিলেন বিজেপির জেলা সভাপতি সমিত দাশ৷ ছিলেন স্থানীয় নেতা শুভজিৎ রায়, শিবু পানিগ্রাহী, অরূপ দাস-সহ জেলা নেতৃত্বের একাংশ৷এবারের নির্বাচন ২০১১ সালের মতো হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। রোড শো শেষে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে রূপা বলেন, ‘ ২০১১ সালেও বামফ্রন্ট নাকে সরষের তেল দিয়ে ঘুমোচ্ছিল। এবারও তৃণমূল বুঝতে পারছে না যে নিচুতলায় মানুষতাদের কাছ থেকে সরে গিয়েছে। তাই তারা এখন গ্রামে গ্রামে গিয়ে নিরীহ ভোটারদের ভয় দেখাচ্ছে৷ বলছে, বুথে বুথে ক্যামেরা ফিট থাকবে। আর সেই ক্যামেরায় কে, কাকে ভোট দিচ্ছে, তা ধরা পড়ে যাবে।’ এরপরই রূপার চ্যালেঞ্জ, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপরেই শুধু নির্ভর করছে না৷ গণতন্ত্রে নিজের মতদানে যে কোনও রকম প্রতিরোধ এলেই, তা রুখে দেবেন মানুষ৷

[আরও পড়ুন:প্রচারে বেরিয়ে দুষ্কৃতীদের হাতে নিগৃহীত উলুবেড়িয়ার বিজেপি প্রার্থী জয় বন্দ্যোপাধ্যায়]

সেইসঙ্গে তিনি মেদিনীপুর থেকে দিলীপ ঘোষকে জেতানোর আহ্বানও জানান এলাকাবাসীকে৷ বিজেপির তরফে বারবারই অভিযোগ উঠছে, স্বচ্ছ ও অবাধ নির্বাচনে বাধা দিচ্ছে তৃণমূল আশ্রিত গুন্ডাবাহিনী৷ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের কথায় ফের সেই সুরই উঠে এল৷ আগামী ১২ মে মেদিনীপুরে নির্বাচন৷ লড়াই চতুর্মুখী৷ মানস ভুঁইয়ার মতো প্রার্থীর সঙ্গে কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামতে হবে দিলীপ ঘোষকে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement