BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে রণক্ষেত্র হালিশহর, ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হল অর্জুন সিংয়ের গাড়ি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 5, 2020 9:53 pm|    Updated: July 5, 2020 10:57 pm

An Images

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য, বারাকপুর: ফের রাজনৈতিক সংঘর্ষে রণক্ষেত্র হয়ে উঠল ভাটপাড়া লাগোয়া হালিশহর। দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে হামলার মুখে পড়লেন বারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং (Arjun Sing)। তাঁর গাড়ি ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে।  গুলি, বোমা চলে বলেও অভিযোগ। তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

ঘটনার সূত্রপাত রবিবার রাতের দিকে। হালিশহরের বলদেঘাটায় প্রাক্তন উপ-পুরপ্রধান রাজা দত্তের বাড়িতে একটি বৈঠক করছিলেন সাংসদ অর্জুন সিং।  সোমবার দলের প্রতিষ্ঠাতা শ্য়ামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের জন্মদিন। করোনা আবহে তা পালনের জন্য ভারচুয়াল সভাই বেছে নিয়েছে বিজেপি। সেসব নিয়ে আলোচনা চলছিল বলে সূত্রের খবর। সে সময় বাইরে রাখা অর্জুন সিংয়ের গাড়ির উপর আচমকা হামলা হয় বলে অভিযোগ। ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে অর্জুন সিংয়ের গাড়ি। পালটা যুব তৃণমূলের একটি পার্টি অফিসে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। দু’পক্ষের বেশ কয়েকটি মোটর বাইকও জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

[আরও পড়ুন: দেখা করতে ডেকে প্রাক্তন প্রেমিকাকে ‘ধর্ষণ’ যুবকের, বাঁচানোর নামে অত্যাচার চালাল বন্ধুও]

অর্জুন সিংয়ের অভিযোগ, তৃণমূলের কর্মী, সমর্থকরা তাঁর নিজের গাড়ি-সহ তিনটি গাড়িতে ভাঙচুর চালিয়েছে। পুলিশও তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছে, অশালীন ভাষায় কথা বলেছে বলে অভিযোগ। বিজেপির বিরুদ্ধে পালটা হামলার অভিযোগ তুলেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। বীজপুর বিধানসভা এলাকার তৃণমূল নেতা সুবোধ অধিকারী জানিয়েছেন, তিনি ওই এলাকা দিয়ে আসার সময় বিজেপি কর্মীরা অতর্কিতে তাঁর উপর হামলা চালায়। যার দরুণ এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে বিজেপি কর্মীদের গাড়ি ভেঙেছে। উত্তর ২৪ পরগনার তৃণমূল সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বক্তব্য, ”অর্জুন সিংয়ের ডেরা ভাটপাড়া-হালিশহরে তৃণমূল নতুন করে সংগঠন সাজাচ্ছে। সুবোধকে এখানকার পর্যবেক্ষক হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে। তাতে ভয় পেয়ে অর্জুন এবং বিজেপি কর্মীরা পরিকল্পনা করে এ ধরনের হামলা চালিয়েছে।” 

[আরও পড়ুন: তৃণমূলের দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরব হতেই খুন SUCI নেতা, কুলতলি কাণ্ডে প্রকাশ্যে নয়া তথ্য]

জানা গিয়েছে, এদিন সকাল থেকেই চাপা উত্তেজনা চলছিল হালিশহরের এই অঞ্চলে। এরপর রাতের দিকে এই গন্ডগোল। গোটা ঘটনা নিয়ে বীজপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ। হামলার ঘটনার পর সাংসদ অর্জুন সিংয়ের নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হয়েছে। বড় অশান্তি এড়াতে এলাকায় মোতায়েন পুলিশ বাহিনী।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement