BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৮ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ভোটের ফল মেলাতে পারলেই গঙ্গাবক্ষে ইলিশ ভোজন

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 20, 2019 12:12 pm|    Updated: May 20, 2019 12:12 pm

An Images

সৈকত মাইতি, তমলুক: সারা দেশের ভোট সমীক্ষা নিয়ে যখন সোশ্যাল মিডিয়া, টিভির পর্দায় জল্পনা তুঙ্গে। তখন দেশের শাসনভার কারা সামলাবেন, তা নিয়ে চর্চায় এক অন্যমাত্রা কোলাঘাটে। দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী কে হচ্ছেন- সহ একগুচ্ছ প্রশ্নের উত্তর সঠিক দিতে পারলেই গঙ্গাবক্ষে বিনামূল্যে ইলিশ উৎসবে অংশ নেওয়া পাকা। কাজেই ভোট পরবর্তী পরিস্থিতিতে হিংসা হানাহানির বদলে শান্তি ও সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় কোলাঘাটের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার এই উদ্যোগে উচ্ছ্বসিত আট থেকে আশি সকলেই।

[বুথ সামলাল প্রমীলা বাহিনী, নারীশক্তির কর্মক্ষমতা দেখল উত্তর কলকাতা]

ভোটে কোনও পক্ষের জয় পরাজয় তা নিয়ে মাথা ব্যথা নেই ওদের। তবুও ভোটার সচেতনতায় বিচক্ষণতার পরিচয় দেওয়া সফল প্রতিযোগীদের নিয়ে ইলিশ উৎসবে মাততে চলেছে কোলাঘাটের সংস্কৃতি প্রেমী মানুষজনেরা। কোলাঘাটের রূপনারায়ণের পাড় ঘেঁষা একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। ইতিমধ্যেই জনসাধারণের উদ্দেশ্যে ভোট সচেতনতায় এই সংস্থার উদ্যোগ রীতিমতো সাড়া ফেলেছিল। এবার তাঁদের উদ্যোগেই আয়োজন করা হয়েছে ভোটের ফলাফল নিয়ে ব্যতিক্রমী একটি কুইজ প্রতিযোগিতা। সেখানে প্রশ্ন থাকছে প্রধানমন্ত্রীর পদে শপথ নিচ্ছেন কে? সেই সঙ্গে ক্ষমতায় আসছে কোন দল। এদিকে বাংলায় কোন দল কটি আসন পাচ্ছে। তমলুক লোকসভায় তৃতীয় স্থানে থাকছে কোন দল। এই প্রশ্নের সবচেয়ে কাছাকাছি উত্তর যাঁরা দিতে পারবেন, সেই রকম ৩০জন সফল প্রতিযোগীকে বিনামূল্যে গঙ্গাবক্ষে এই ইলিশ উৎসবে অংশ নিতে পারবেন।

স্বভাবতই এমন খুশির খবরে আগাম ফলাফলের বিশ্লেষণ করতে হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়েছে। ইতিমধ্যেই নির্দিষ্ট হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে বহু মানুষ উত্তর পাঠাতে শুরু করেছে। আগামী ২৩মে সকাল ৯টা পর্যন্ত এই সকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়া যাবে। আগ্রহী স্থানীয় এক বাসিন্দা নতুন ভোটার কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী সৃজা সরকার বলেন, এ ধরনের অভিনব উদ্যোগে আমরা সত্যিই আপ্লুত। তাই সঠিক প্রশ্নের উত্তটি দিয়ে ইলিশ উৎসবে অংশ নিতে পারব এটাই দারুণ ব্যাপার। আয়োজকদের পক্ষে তপন মাইতি জানান, সফল প্রতিযোগীদের জন্য গঙ্গাবক্ষে এক মনোরম পরিবেশে ভাপা ইলিশ, দই ইলিশ, সরষে ইলিশ, ইলিশ চচ্চড়ি-সহ নানান লোভনীয় ভুরিভোজে আপ্যায়িত করা হবে। আর এই আয়োজনের অন্যতম উদ্দ্যেশ ভোটার সচেতনতা ও ভোট পরবর্তী হিংসা, উত্তেজনা কমানো।

[‘মিমিকে দেখুন কোথাও গিয়ে মেকআপ নিচ্ছেন’, নির্বাচন শেষে খোশমেজাজে অনুপম]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement