৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

নিজস্ব সংবাদদাতা, বনগাঁ: রোজই সাফাই কর্মীদের প্ল্যাটফর্মে জড়ো করা জঞ্জাল ঘেঁটে আধার কার্ড, ভোটার কার্ড-সহ নানা গুরুত্বপূর্ণ নথি কুড়িয়ে ব্যাগে ভরেন এক ব্যক্তি। ট্রেন যাত্রীদের হারিয়ে যাওয়া প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এভাবেই সংগ্রহ করে তাঁদের বাড়ির ঠিকানায় পোস্ট করে চলেছেন বনগাঁ মহকুমার গোপালনগর থানার প্রাক্তন বায়ুসেনা কর্মী  প্রশান্ত মজুমদার (৫৭)। কেন করছেন প্রশ্নে প্রশান্ত বাবু বলেন, কর্মজীবনে চলার পথে বেশ কয়েকবার গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র হারিয়ে খুব সমস্যা ও কষ্টের মধ্যে পড়তে হয়েছিল তাঁকে৷ সেই উপলব্ধি থেকে এই কাজটি শুরু করেন তিনি।

সূত্রের খবর, প্রশান্ত মজুমদার বায়ুসেনার প্রাক্তন কর্মী। অবসর গ্রহণের পর ২০০৭ সাল থেকে শিয়ালদা কার্গো অ্যান্ড ওয়াগন সেফটি টেকনিশিয়ান হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। দৈনিক  বনগাঁ হয়ে শিয়ালদা আবার কখনও রানাঘাট হয়ে শিয়ালদা জাংশানে এসে চাকরিতে যোগ দেন। যাতায়াতের পথে গোপালনগর, বনগাঁ, রানাঘাট ও শিয়ালদা স্টেশন থেকে যাত্রীদের হারিয়ে যাওয়া নথিগুলি সংগ্রহ করেন তিনি। তবে এখন তাঁকে খুব বেশি জঞ্জাল হাতাতে হয় না। সৈনিক বাবুর জন্য নথিপত্র সংগ্রহ করে রাখেন সাফাই কর্মীরাই। প্রায় ১২ বছর ধরে এই কাজ করে চলেছেন তিনি।

prasant-1

[ আরও পড়ুন: কন্যাশ্রীদের স্বাস্থ্য সচেতনতায় বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বণ্টন জেলা পুলিশের ]

তাঁর বাড়িতে টেবিলের উপর ছড়িয়ে রয়েছে ভোটার কার্ড, আধার কার্ড, বার্থ সার্টিফিকেট-সহ নানা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র। শ্রীনগর, বিহার, ওড়িশা-সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের সেগুলি। তার থেকে নাম ঠিকানা উদ্ধার করে খামবন্দী করছেন প্রশান্তবাবু। এরপর নিজের পকেটের পয়সাতেই ডাকটিকিট লাগিয়ে পোস্ট করবেন৷ প্রশান্তবাবু বলেন, “যাত্রীদের  হারিয়ে যাওয়া নথি কুড়িয়ে নিয়ে তাদের পৌঁছে দিয়ে তাদের একই কাজ  করার জন্য অনুপ্রাণিত করি।” আজ পর্যন্ত কতগুলো নথি পোস্ট করেছেন, কখনও তার হিসাব করেননি৷ “আনুমানিক হাজারের উপরে,” বলেন তিনি।

বনগাঁ পোস্ট অফিসের কর্মী মৃত্যুঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, “বহু বছর ধরে নিঃশব্দে এই কাজ করে চলেছেন প্রশান্ত মজুমদার। মাঝে মধ্যেই এক পাঁজা খাম নিয়ে পোস্ট অফিসে জমা দিতে আসেন বলে আমরা জানতে পেরেছিলাম। প্রাক্তন সেনা কর্মীর এমন কাজে গর্ববোধ করি আমরা।”

[ আরও পড়ুন: কংগ্রেস নেতাকে না পেয়ে ছেলেকে গুলি, চাঞ্চল্য কান্দিতে ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং