৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘রাজনৈতিক স্বার্থে দেশে হিন্দু-মুসলিমদের মধ্যে বিভেদ ঘটানো হচ্ছে’, মন্তব্য অমর্ত্য সেনের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: July 10, 2022 9:42 am|    Updated: July 10, 2022 12:57 pm

Rift being created between communities in India, says Amartya Sen। Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত বৃহস্পতিবারই তিনি জানিয়েছিলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি ভয় পাওয়ার মতো। সেই একই সুর বজায় রেখে ফের শনিবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন নোবেলজয়ী (Nobel) অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন (Amartya Sen)। তাঁর দাবি, রাজনৈতিক সুবিধা পেতে দেশে হিন্দু ও মুসলমানের মধ্যে বিভেদ ঘটানো হচ্ছে।

এক সংবাদমাধ্যমের অনুষ্ঠানে অনলাইনে যোগ দিয়েছিলেন বর্ষীয়ান অর্থনীতিবিদ। ভিডিও বার্তায় তাঁকে বলতে শোনা যায়, ”ভারতীয়দের মধ্যে বিভেদ তৈরি করার চেষ্টা হচ্ছে। এদেশের হিন্দু ও মুসলমানের সহাবস্থানে ফাটল ধরানো হচ্ছে রাজনৈতিক সুবিধার জন্য।” সেই সঙ্গে দেশে স্বাধীন চর্চায় কোপ পড়ছে বলেও আক্ষেপ করতে দেখা যায় তাঁকে।

[আরও পড়ুন: ‘আমি হলে ওকে টি-২০ দলে রাখতাম না’, কোহলিকে নিয়ে অসন্তুষ্ট অজয় জাদেজা]

শনিবারই জানা গিয়েছে, করোনায় আক্রান্ত অমর্ত্য সেন। তিনি রয়েছেন তাঁর শান্তিনিকেতনের বাড়িতে। সেখান থেকেই ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ”স্বাধীনতার আগে দেখতাম মানুষকে দমিয়ে রাখতে নিরপরাধ লোকদেরও জেলে ভরে রাখা হত। তখন আমি তরুণ। এরপর দেশ স্বাধীন হল। কিন্তু বিনা অপরাধে কারাবন্দি করার ঘটনা আজও ঘটে চলেছে।”

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সল্টলেকে প্রতীচী ট্রাস্টের এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন অমর্ত্য সেন। সেখানে তাঁকে বলতে শোনা যায়, ”ভারত কেবল হিন্দুদের দেশ নয়। আবার কেবল মুসলিমদেরও নয়। সবাইকে একসঙ্গে একযোগে কাজ করতে হবে এখানে।”

পাশাপাশি অমর্ত্যর কথায়, ”আমি চাই দেশ ঐক্যবদ্ধ থাকুক। এই দেশ ঐতিহাসিক ভাবেই উদার। এখানে কোনও বিভাজন চাই না।” শনিবারও বিভাজনের কথা উঠে এল তাঁর কথায়।
এদিকে শনিবারই জানা যায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন অমর্ত্য সেন। গত পয়লা জুলাই শান্তিনিকেতনে নিজের বাড়িতে আসেন তিনি ৷ লকডাউনের জেরে পৈতৃক ভিটেতে আসা হচ্ছিল না তাঁর। প্রায় দু’বছর পর এ মাসেই শান্তিনিকেতনে আসেন তিনি। কোভিড সংক্রমণ থেকে সুরক্ষিত থাকতে খুব একটা বাইরেও যাচ্ছিলেন না। এমনকী কারও সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎও খুব কম করছিলেন। শনিবার কলকাতায় ওই সংবাদমাধ্যমের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পর রবিবারই লন্ডনে ফিরে যাওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু আপাতত কোভিড আক্রান্ত অর্থনীতিবিদকে শান্তিনিকেতনেই থাকতে হবে।

[আরও পড়ুন: ২০ বছর ধরে ঋতুস্রাব হচ্ছে পুরুষের! পেটের ব্যথায় চিকিৎসকের কাছে যেতেই মাথায় হাত যুবকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে