BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অসুস্থতার জন্যই যোগীর সভায় অনুপস্থিত, সাংবাদিক বৈঠকে সাফাই শান্তনুর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 23, 2019 4:36 pm|    Updated: April 23, 2019 4:36 pm

An Images

নিজস্ব সংবাদদাতা, বনগাঁ: তাঁরই সমর্থনে জনসভা করতে এসেছিলেন দলের বাছাই করা তারকা প্রচারক৷ সোমবার সুদূর উত্তরপ্রদেশ থেকে বনগাঁয় সভা করে গিয়েছেন সেরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ কিন্তু সেই সভায় গরহাজির ছিলেন স্বয়ং প্রার্থীই৷ বনগাঁর বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুরের এই অনুপস্থিতি নিয়ে নানা জল্পনা তৈরি হয়েছিল রাজনৈতিক মহলে৷ অনুপস্থিতির নেপথ্যে কেউ কেউ গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ছায়াও দেখতে পাচ্ছিলেন৷

[ আরও পড়ুন:  বিরিয়ানি খেয়ে নদিয়ায় অসুস্থ শতাধিক, আশঙ্কাজনক ১৬]

২৪ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই, সেসব জল্পনা উড়িয়ে দিলেন শান্তনু ঠাকুর৷ একেবারে সাংবাদিক সম্মেলন করে তিনি অনুপস্থিতির কারণ পরিষ্কার করলেন৷ মঙ্গলবার ব্যক্তিগত চিকিৎসক সুখেন্দুনাথ গাইনকে পাশে বসিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন বনগাঁর বিজেপি প্রার্থী, ঠাকুরবাড়ির ছোট ছেলে৷ জানান, তাঁর অনুপস্থিতির কারণ অসুস্থতা৷ বেশ কয়েকদিন ধরে তিনি পেটের অসুখ, ডিহাইড্রেশনে ভুগছিলেন৷ সোমবার সারাদিন তাঁকে বিশ্রামে থাকতে বলা হয়েছিল৷ এমনকী চিকিৎসক তাঁর সঙ্গে ছিলেন বলেও জানান শান্তনু৷ চিকিৎসকও জানান, এমনিতেই শান্তনুর বেশ কয়েকটি শারীরিক সমস্যা আছে৷ তার মধ্যে টানা রোদে ঘুরে ঘুরে প্রচারের ফলে শরীর বেশ খারাপ হয়ে পড়েছিল গত ১৯ তারিখ থেকে৷ হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা করাতে হয়েছে৷ সে কারণেই ২২ তারিখ যোগী আদিত্যনাথের সভায় উপস্থিত থাকতে পারেননি শান্তনু৷ তাঁর জন্য সভায় যাননি চিকিৎসক সুখেন্দুনাথ গাইনও৷

[ আরও পড়ুন: কংগ্রেস-তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তপ্ত ভগবানগোলা, মৃত ১]

সোমবার যোগীর প্রচারসভায় মাঠও ভরেনি বলে বিরোধীরা ইতিমধ্যেই নানা কটাক্ষ করতে শুরু করেছিলেন৷ তার জবাবে এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে শান্তনু বলেন, ‘যারা মাঠ ভরেনি বলছেন, তারা বিরোধী৷ তাদের কাজই বিরোধিতা করা৷ আমি তো বাবরবার তাদের কথার উত্তর দেব না৷ উত্তর মিলবে ভোটের বাক্সে৷’ এদিনও জয় নিয়ে প্রার্থীকে বেশ আত্মবিশ্বাসী মনে হল৷ সোমবার বিজেপি প্রার্থী নিজে যোগীর সভায় না থাকলেও, মতুয়া ভক্তদের উপস্থিতি বেশি আশা করেছিল দল। বরাবরই মতুয়া পরিবারের যে কোনও সভায় অনুষ্ঠানে ডঙ্কা বাজিয়ে, নিশান হাতে জড়ো হন অনুগামীরা। কিন্তু সোমবার তা দেখা যায়নি৷ এনিয়ে প্রশ্ন করায় শান্তনু ঠাকুর জানান, ‘মতুয়া ভক্তরা নিজেদের রীতি মেনে বাজনা বাজিয়েই সভাস্থল পর্যন্ত যান৷ কিন্তু যোগী আদিত্যনাথের মতো নেতার কথা শোনার জন্য তাঁরা বাজনা বন্ধ করে দিয়েছিলেন৷ বোঝাই গেল, অনুপস্থিতি নিয়ে বেশ চাপে পড়েছেন বনগাঁর বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর৷ নাহলে সাংবাদিক সম্মেলন কেন?

দেখুন ভিডিও: 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement