BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অনুপস্থিত প্রার্থী, ভরল না মাঠও! বনগাঁয় যোগীর সভা নিয়ে বিড়ম্বনায় বিজেপি

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 22, 2019 1:46 pm|    Updated: April 22, 2019 4:11 pm

An Images

নিজস্ব সংবাদদাতা, বনগাঁ:  ফের রাজ্য সফরে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সোমবার সকালে উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ স্টেশন সংলগ্ন একটি মাঠে সভা করলেন যোগী। এদিনের সভা থেকে তৃণমূলকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি। পাশাপাশি বেকারত্বের জন্য সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করান তিনি। এদিনের সভায় উপস্থিত ছিলেন না বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর। ভরেনি মাঠও, তা নিয়ে শুরু জল্পনা। 

[আরও পড়ুন: ৩ বছরেও গড়ে উঠল না ভাঙনে তলিয়ে যাওয়া ঘর, প্রতিবাদে ভোট বয়কটে বীরনগর]

নির্বাচনের আগে শেষলগ্নের  প্রচারে ব্যস্ত সব দল। প্রতিপক্ষকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তেও রাজি নন কেউ। সেই কারণে, রাজ্যের সবকটি লোকসভা কেন্দ্রে চুটিয়ে প্রচার চালাচ্ছে রাজনৈতিক দলগুলি। সোমবার বনগাঁয় প্রচার সারলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এদিন বেলা ১২ টা নাগাদ বনগাঁ স্টেশন সংলগ্ন সভাস্থলে পৌঁছান তিনি। সেখান থেকে মোদি সরকারের প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা সকলের সামনে তুলে ধরেন তিনি। উত্তরপ্রদেশের উন্নয়ন ও বাংলার উন্নয়নের ব্যবধান প্রসঙ্গে তৃণমূলকে বিঁধলেন যোগী। সভা থেকে তিনি বলেন, ‘পরবর্তী দিনে নিজেরা ভাল থাকতে চাইলে, সব সুযোগ সুবিধা চাইলে, সর্বোপরি কৃষকদের স্বার্থে বিজেপিকেই ভোট দিতে হবে।’

jogi-2

সভামঞ্চ থেকে সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করেন তিনি। এ রাজ্যের বেকারত্বের সমস্যার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকেই দোষারোপ করেন যোগী। তাঁর কথায়, ‘মোদিজি যতবার রাজ্যে উন্নয়ন আনতে চেয়েছেন, ততবার সেখানে বাধা দিয়েছেন এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। যতবার শিল্প আনার চেষ্টা করা হয়েছে, প্রতিক্ষেত্রেই তিনিই সমস্যা তৈরি করেছেন। সেই কারণেই উত্তরপ্রদেশ এগিয়ে গিয়েছে, আর বাংলা আজ বেকারত্বের অসুখে ভুগছে।  কারণ, রাজ্যে নতুন শিল্প আসতে পারেনি, ফলে চাকরি পাচ্ছে না যুব সমাজ।’

[আরও পড়ুন: মৌসম নূরের ছবি বিকৃত করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট, ভোটের আগের চাঞ্চল্য]

তবে, এদিনের সভা থেকে ফের প্রকাশ্যে এল গোষ্ঠীকোন্দলের ছবি। জানা গিয়েছে, এদিনের আদিত্যনাথের সভায় ছিলেন না বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শান্তনু ঠাকুর। যদিও এ প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা প্রদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, শারীরিক অসুস্থতার কারণে সভায় উপস্থিত হতে পারেননি বিজেপি প্রার্থী। সূত্রের খবর, এদিনের সভায় যোগ দেন হাজার ছয়েক কর্মী, সমর্থক। অর্থাৎ যোগীর সভায় একে অনুপস্থিত খোদ প্রার্থী, সেইসঙ্গে ভরল না মাঠও। এর পিছনে দলের অন্তর্দ্বন্দ্বের আভাসই পাচ্ছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement