BREAKING NEWS

১৪ ফাল্গুন  ১৪২৭  শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘আমরা রাম, ওরা বিভীষণ’, হিন্দুত্বের অস্ত্রেই বঙ্গে বিজেপি বিরোধী প্রচারের সুর চড়াল শিব সেনা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 19, 2021 9:13 pm|    Updated: February 20, 2021 3:48 pm

An Images

সুনীপা চক্রবর্তী, ঝাড়গ্রাম: বিজেপিকে ‘বিভীষণ’ বলে চিহ্নিত করে বাংলায় ভোটপ্রচার শুরু করল শিব সেনা (Shiv Sena)। শুক্রবার ঝাড়গ্রামে (Jhargram) প্রথম সভা করে উদ্ধব ঠাকরের দল। প্রচার সভায় হিন্দুত্ব ইস্যুতে বিজেপিকে খোঁচা দিলেন শিব সেনার নেতারা। বঙ্গের ভোটের আগে শিব সেনার সভা ঘিরে আদিবাসী অধ্যুষিত জঙ্গলমহলে রাজনৈতিক প্রচার জমে উঠল।

বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে মোট ১০০ টি আসনে প্রার্থী দিচ্ছে মহারাষ্ট্রের ক্ষমতাসীন দল। বিজেপির মতো শিব সেনারও অন্যতম হাতিয়ার হিন্দুত্ব। কিন্তু এই ইস্যুতে উভয়ের ধারণাগত তফাৎ রয়েছে। শুক্রবার ঝাড়গ্রামে প্রচারসভায় এসে বিজেপির বিরুদ্ধে এই অস্ত্রেই আরও শান দিল শিব সেনা নেতৃত্ব। শিব সেনার রাজ্য সাধারণ সম্পাদক অশোক সরকার বলেন, ”বিজেপি বলে, ওরা হিন্দুত্ববাদী দল। আমরাও হিন্দুত্ববাদী দল। তবে আমরা রাম, ওরা বিভীষণ।বিজেপির বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুললে তাঁদের পুলিশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তা থেকে কবি, সাহিত্যিক, সাংবাদিকরাও ছাড় পাচ্ছেন না।”

[আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুহীন কলকাতা, রাজ্যে সুস্থতার হার ৯৭.৫৮ শতাংশ]

তৃণমূল থেকে বিজেপিতে (BJP) নাম লেখানো শুভেন্দু অধিকারীর নাম করেই আক্রমণ করেন শিব সেনার জেলা সভাপতি মধু সিং। তাঁর কথায়, “এরা সাধারণ মানুষের ভোট নিয়ে মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। নিজের জেল বাঁচানোর জন্য বিজেপির পা ধরছে। এতদিন রাজ্যের টাকা লুট করে এখন সতী সাজছে।” কৃষি আইন, বেসরকারিকরণ নিয়ে তাঁর আরও কটাক্ষ, ”গত এক বছর মারণ করোনায় যখন দেশ আক্রান্ত, তখন বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকার দেশকে বিক্রি করে দিয়েছে। অত্যাবশ্যকীয় খাদ্যসামগ্রী বিক্রি করে দিচ্ছে। মোদী সরকারের ঘুম ভাঙছে না। তারা দেখাচ্ছে এনআরসি, এনপিআর। চাষিরা যখন শীতে দিল্লি সীমানায় আন্দোলন করছে, তখন নিশ্চিন্তে ঘুমোচ্ছেন মোদি।”

[আরও পড়ুন: রাজ্যে ‘ভয়ের পরিবেশ’, শান্তিনিকেতন থেকে পরিবর্তনের পক্ষে সওয়াল রাজ্যপালের]

কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনায় তৃণমূলের সঙ্গে সুর মিলিয়ে  শিব সেনা নেতৃত্বের বক্তব্য, ”এরা বাংলাই জানে না, বাংলা দখল করতে এসেছে! বিজেপি আর ভদ্রলোকেদের জায়গা নেই। বর্ডার দিয়ে যদি লোক ঢোকে, তাহলে নেতাদের ২০, ২৫জন সিকিউরিটি বাদ দিয়ে তাঁদের সীমান্তে পাঠান না।” তৃণমূলের প্রশংসা করতে গিয়ে ‘স্বাস্থ্যসাথী’র উল্লেখ করলেন তাঁরা। বোঝাই গেল, বঙ্গে নির্বাচনে বিশেষত  আদিবাসী অধ্যুষিত জঙ্গলমহলে শিব সেনাও উল্লেখযোগ্য প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে উঠে আসতে চাইছে। 

ভিডিও: প্রতিম মৈত্র।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement