Advertisement
Advertisement
Shootout

বর্ষবরণের রাতে গড়িয়ার ক্লাবে হামলা, চলল গুলি, জখম ব্যক্তি ভরতি হাসপাতালে

গুলি চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা, এখনও অধরা।

Shootout at a club in Garia on New Year celebration, one admitted to SSKM hospital | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:January 1, 2022 3:01 pm
  • Updated:January 1, 2022 3:07 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বর্ষবরণের রাতে উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠার সময়ই শহরে ঘটল হামলার ঘটনা। গড়িয়ার বাহান্ন পল্লি এলাকায় চলল গুলি (Shootout)। আহত হয়ে একজন ভরতি এসএসকেএম হাসপাতালে (SSKM Hospital)। ভাঙচুর করা হয়েছে ক্লাবঘরও। ঘটনার তদন্তে নেমেছে নরেন্দ্রপুর (Narendrapur) থানার পুলিশ। তবে এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি বলে খবর। ৩১ ডিসেম্বরের রাতে এই হামলার ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। নতুন বছরেও থমথমে এলাকা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বর্ষবরণ (New Year celebration) উপলক্ষে ৫২ পল্লির এক ক্লাবে আনন্দ উদযাপনের আয়োজন হয়েছিল। বসেছিল মদ্যপানের আসরও। ক্লাব সদস্যদের অভিযোগ, রাতের দিকে জনা কয়েক দুষ্কৃতী আচমকা হামলা চালায় ক্লাবে। ভাঙচুর করা হয়। অনুষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়। কিন্তু তাতে কর্ণপাত করেননি কেউ। অভিযোগ, তাতে আরও খেপে গিয়ে দুষ্কৃতীরা ভাঙচুর শুরু করে। আটকাতে যান ক্লাবের সদস্য অমিত শীল। তখন তাঁকে লক্ষ্য করে দুষ্কৃতীরা গুলি (Shot) চালায় বলে অভিযোগ। অমিত গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। অভিযোগ, এরপরই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করলেও এখনও তাদের কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি বলে খবর। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: খোলামুখ খনিতে ফের বিপত্তি, জ্বলন্ত খনিগর্ভে তলিয়ে গেলেন ইসিএল আধিকারিক]

বন্ধুরা তাঁকে উদ্ধার করে এসএসকেএম হাসপাতালে ভরতি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন তিনি। হাসপাতাল সূত্রে খবর, অমিতের শারীরিক অবস্থা সংকটজনক (Critical)। তাঁর শরীর থেকে গুলি বের করার জন্য অস্ত্রোপচার হবে। নিরাপদে সবাই যাতে বর্ষবরণ উদযাপন করতে পারেন, সেদিকে সদা সতর্ক ছিল পুলিশ। কোভিডবিধি মানা নিয়েও আলাদা করে সতর্কতা অবলম্বন করা হয়েছিল। কিন্তু তার মধ্যেও ক্লাবের উপর হামলা এবং গুলিচালনার ঘটনায় কিছুটা চিন্তিত পুলিশ। তবে কে বা কারা, কী কারণে এমন হামলা চলল, তা নিয়ে এখনও অন্ধকারে ক্লাবের সদস্যরা। পলাতক দুষ্কৃতীরা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: পারিবারিক অশান্তির জের, তিন সন্তানকে নিয়ে নদীতে ঝাঁপ মহিলার]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ