BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

মুর্শিদাবাদে CAA-NRC বিরোধী আন্দোলনেও যোগ দিয়েছিল জঙ্গিরা, জেরায় মিলল নয়া তথ্য

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 21, 2020 10:24 pm|    Updated: September 21, 2020 10:24 pm

An Images

অর্ণব আইচ: মুর্শিদাবাদে ধৃত ছয় আল কায়দা জঙ্গিকে জেরা করে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য পেল এনআইএ  (NIA) আধিকারিকরা। জেরায় জানা গিয়েছে, ধৃতরা মুর্শিদাবাদে সিএএ এবং এনআরসি বিরোধী আন্দোলনেও যোগ দিয়েছিল তারা। তাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট দেখেও হতবাক তদন্তকারীরা। তাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শুধু পাকিস্তানের স্তুতি। এছাড়াও ধৃতদের মোবাইল এবং ল্যাপটপে পাকিস্তান থেকে নজর রাখা হত। ধৃতদের জেরা করে মামুন আনসারি নামে আরও একজনের নাম জানা গিয়েছে। মামুনের খোঁজ করছেন তদন্তকারীরা। এদিকে, সোমবার বিকেলেই দিল্লিতে নিয়ে যাওয়া হয় ধৃত ছয় জঙ্গিকে।

উল্লেখ্য, বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে শনিবার সকালে কেরলের এর্নাকুলাম ও পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার ১১টি জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালান এনআইএ’র তদন্তকারীরা। এর ফলে পশ্চিমবঙ্গ থেকে ৬ জন ও কেরল থেকে তিনজন আল কায়দা জঙ্গি গ্রেপ্তার হয়েছে। ধৃতদের জেরা করে জানা গিয়েছে, নয়াদিল্লি-সহ দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় অতর্কিতে ‘লোন উলফ্’ হামলা চালানোর ছক কষছিল জঙ্গিরা। কিন্তু, তার আগেই তাদের গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়েছে। ধৃতদের গ্রেপ্তার করার পাশাপাশি তাদের কাছ থেকে বোমা তৈরির উপাদান, দেশীয় পিস্তল, ধারালো অস্ত্র, ডিজিটাল ডিভাইস, জেহাদি কাগজপত্র-সহ অনেক জিনিস উদ্ধার হয়।

[আরও পড়ুন: প্রেমিকার ঘনিষ্ঠ ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ানোর হুমকি তৃণমূল নেতার! অপমানে আত্মহত্যার চেষ্টা তরুণীর]

আল কায়দা নাশকতামূলক ক্রিয়াকলাপ চালাতে যে আর্থিক মদত দিত রাজ্যের জঙ্গিদের তা পাকিস্তান থেকে বাংলাদেশ ঘুরে কেরল ও মুর্শিদাবাদের জঙ্গি নেতাদের হাতে পৌঁছত। তারই সূত্র ধরে সন্ধান চলছে মালদহ ও মুর্শিদাবাদের কয়েকটি হাওয়ালা চক্রের। এই আর্থিক মদতের পিছনে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের (ISI) হাত রয়েছে বলে অনেকটাই নিশ্চিত গোয়েন্দারা। সোমবার তাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খতিয়ে দেখে পাকিস্তান যোগ যেন আরও স্পষ্ট হল। কারণ, ধৃতদের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শুধু পাকিস্তানের স্তুতি। এছাড়াও ধৃতদের মোবাইল এবং ল্যাপটপে পাকিস্তান থেকে নজর রাখা হত। এনআইয়ের হাতে যে ৯ জন আল কায়দার সদস্য গ্রেপ্তার হয়েছে, তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খতিয়ে দেখছেন গোয়েন্দারা। তাদের মধ্যে চারজনের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে কয়েক লক্ষ টাকা পাওয়া গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে বাধা, পথের কাঁটা সরাতে বাপের বাড়িতে ডেকে স্বামীকে ‘খুন’ স্ত্রীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement