Advertisement
Advertisement
TMC-BJP

রেল কলোনি থেকে উচ্ছেদের নোটিস ঘিরে উত্তেজনা, ব্যান্ডেলে তৃণমূলের মিছিল, পালটা পথে বিজেপিও

ব্যান্ডেলে লাঠি হাতে প্রতিবাদ মিছিলের নেতৃত্বে স্বয়ং তৃণমূল বিধায়ক।

TMC, BJP hold rally at Bandel over eviction row from rail colony| Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:November 27, 2020 4:00 pm
  • Updated:November 27, 2020 4:10 pm

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: তৃণমূল বিজেপি মিছিল, পালটা মিছিল থেকে উত্তেজনা, হাতাহাতিতে রীতিমতো সরগরম ব্যান্ডেল (Bandel) । রেলস্টেশন সংলগ্ন এলাকা থেকে বাসিন্দাদের উঠে যাওয়ার জন্য রেলের নোটিস ঘিরেই গন্ডগোল। পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করে উচ্ছেদের নোটিস দেওয়ায় রেলের বিরুদ্ধে বাসিন্দাদের সঙ্গে শুক্রবার প্রতিবাদ মিছিলে নামেন স্থানীয় তৃণমূল (TMC) বিধায়ক অসিত মজুমদার। তাঁর হাতে ছিল লাঠি। আর লাঠি হাতে বিধায়কের এই মিছিল দেখেই সরব হয়ে ওঠে বিজেপি (BJP)। তারাও পালটা মিছিলে নামে। এ নিয়ে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে ব্যান্ডেলে।

TMC-BJP

Advertisement

জানা গিয়েছে, ব্যান্ডেল স্টেশন সংলগ্ন রেল কলোনি পীরতলা, সাহেববাগান, সাহেবপাড়া, ক্যান্টিনবাজারে স্বাধীনতার পর থেকেই এতবছর ধরে বহু মানুষ বাস করে আসছেন। দিন দুই আগে রেল থেকে এই কলোনি উচ্ছেদের জন্য নোটিস দেওয়া হয়। নোটিস পেয়ে প্রতিবাদে ফেটে পড়েন বাসিন্দারা। এর প্রতিবাদে আগে একবার স্থানীয় বিধায়ক অসিত মজুমদারের নেতৃত্বে এলাকার মানুষজন ঝাঁটা হাতে মিছিলে শামিল হন। শুক্রবার ফের বিধায়কের নেতৃত্বে এলাকাবাসী মুঙ্গেরের লাঠি নিয়ে মিছিল করেন। ক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর দাবি, পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করে রেল তাঁদের উচ্ছেদ করতে গেলে, তাঁরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামবেন। শুক্রবার লাঠি হাতে তাঁদের মিছিল নতুন মাত্রা যোগ করল আন্দোলনে। মিছিলে লাঠি হাতে নেতৃত্ব দেন বিধায়ক স্বয়ং।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘তৃণমূলের শেষের শুরু’, শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রিত্ব ত্যাগ নিয়ে মন্তব্য দিলীপের]

এই বিষয়ে বিধায়ক অসিত মজুমদার বলেন, ”কেন্দ্রের জনবিরোধী সরকার দীর্ঘ চল্লিশ,পঞ্চাশ বছর ধরে এলাকার বসবাসকারী মানুষের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করে উচ্ছেদের নোটিস ধরাচ্ছে। আজকে আমরা লাঠি হাতে মিছিল করে দেখতে চাই, আরপিএফের কত ক্ষমতা আছে। দেখছে চাই, মানুষের পেটে লাথি মারা কেন্দ্রীয় সরকারের ক্ষমতার চেয়ে বেশি গরিব মানুষের ক্ষমতা বেশি কি না।” এরপর তিনি হুগলির বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়ের উদ্দেশে বলেন, ”যখন গরিব মানুষকে উচ্ছেদের জন্য রেল নোটিস দিয়েছিল, তখন লকেট চট্টোপাধ্যায় কোথায় ছিলেন?” আজকের এই মিছিল এলাকার মানুষেরই স্বতঃস্ফূর্ত প্রতিবাদ।”

[আরও পড়ুন: ধর্ষণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, অগ্নিমিত্রা পলের বিরুদ্ধে তমলুক থানায় অভিযোগ দায়ের]

লাঠি হাতে তৃণমূল বিধায়কের এই মিছিলের প্রতিবাদ জানায় বিজেপির স্থানীয় নেতৃত্ব। ব্যান্ডেল রেল স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় পালটা মিছিলে নামেন তাঁরা। বিজেপির হুগলি সাংগঠনিক জেলার যুব মোর্চার সভাপতি সুরেশ সাউয়ের নেতৃত্বে এই মিছিল থেকে তিনি অভিযোগ করেন, স্থানীয় বিধায়ক এলাকার মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছেন। তাঁদের সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ইতিমধ্যেই রেলমন্ত্রীর সঙ্গে এই উচ্ছেদ সংক্রান্ত বিষয় বেশ কয়েকবার কথা বলেছেন। বৃহস্পতিবার এই সংক্রান্ত রফাসূত্রও বেরিয়েছে। সাংসদ তাঁদের জানিয়েছেন যে রেল তার এলাকায় বসবাসকারী মানুষদের আগামী বেশ কয়েক বছর থাকার সুযোগ করে দিয়েছেন। তাঁর আরও অভিযোগ, সেখানে স্থানীয় বিধায়ক অসিত মজুমদার তাঁর নিজের বিধানসভা এলাকায় টিকিট নিশ্চিত করতে মানুষকে ভুল বুঝিয়ে এদিন ব্যান্ডেলে মিছিল করেছেন। তারই জবাবেই পালটা মিছিল করছে বিজেপিও।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ