১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রানাঘাটে ব্যাংক ম্যানেজারকে হুমকি তৃণমূল নেতার! ভিডিও করায় হেনস্তা কর্মীকে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 28, 2020 1:26 pm|    Updated: July 28, 2020 1:26 pm

TMC leader is accused of harrassing bank manager in Nadia

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার ব্যাংকে ঢুকে ম্যানেজারকে হুমকি ও এক কর্মীকে কলার ধরে হেনস্তার অভিযোগ উঠল তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার (Nadia) রানাঘাটের (Ranaghat) একটি সমবায় ব্যংকে। ওইদিনের ঘটনার পর থেকেই নিরাপত্তার দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ব্যাংক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ঘটনার সূত্রপাত ২২ জুলাই। ওইদিন রানাঘাট ২ নম্বর ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূল সদস্য জগন্নাথ রায় ও এলাকার বেশ কয়েক জন লোক ব্যাংকের ম্যানেজারের সঙ্গে কথা বলতে যান। সেখানেই তাঁরা দাবি জানান যে, আরও কমপক্ষে ৪০০ জনকে সদস্যপদ দিতে হবে। কিন্তু ম্যানেজার সাফ জানিয়ে দেন যে, সামনেই বার্ষিক সভা থাকার কারণে এই মুহূর্তে কোনওভাবেই সদস্যপদ বাড়ানো সম্ভব নয়। এই নিয়ে বাদানুবাদে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ব্যাংক। অভিযোগ, সেই সময়ই জগন্নাথ রায় হুমকি দেয় ব্যাংক ম্যানেজারকে। গোটা ঘটনাটি মোবাইলে ভিডিও করছিলেন ব্যাংকের এক কর্মী। বিষয়টি নজরে পড়তেই ওই কর্মীকে কলার ধরে টেনে হিঁচড়ে হেনস্তা করে জগন্নাথ ও তাঁর দলবল। এরপরই গোটা বিষয়টি জানিয়ে ধানতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয় ব্যাংকের তরফে। যতক্ষণ না অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে, ততক্ষণ ব্যাংক বন্ধ রাখা হবে বলেই জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

[আরও পড়ুন: প্রবল বৃষ্টিতে সেতু ভেঙে সোজা পাতালে পিকআপ ভ্যান, মালবাজারে মৃত দুই]

যদিও নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ মানতে নারাজ জগন্নাথ রায়। তাঁর কথায়, “ওই ব্যাংকে অনৈতিক কাজ হচ্ছে। সে সব বন্ধ করার বিষয়ে গত এক মাস ধরে ব্যাংকের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চাইছিলাম। কিন্তু ম্যানেজার পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। সেই কারণেই ওইদিন ব্যাংকে যাই।” কর্মীকে হেনস্তা প্রসঙ্গে ওই তৃণমূল নেতার সাফাই, “ব্যাংকে সিসিটিভি থাকা সত্ত্বেও মোবাইলে ভিডিও করার কী দরকার ছিল? আমি প্রতিবাদ করেছিলাম মাত্র।” তবে ব্যাংক-তৃণমূল নেতার বিবাদে সমস্যায় পড়েছেন উপভোক্তারা। কারণ, দীর্ঘদিন ধরেই আর্থিক লেনদেন করতে পারছেন না তাঁরা।

[আরও পড়ুন: একদিনে রাজ্যে করোনামুক্ত ২ হাজারেরও বেশি মানুষ, কমল সংক্রমিতের সংখ্যাও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে