BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

চাকা ফেটে বিপত্তি, পরপর পাঁচটি গাড়িকে ধাক্কা মেরে লরি উলটে মৃত ২

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 10, 2020 2:26 pm|    Updated: March 10, 2020 2:36 pm

An Images

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনা আসানসোলে। লরির চাকা ফেটে দুর্ঘটনার কবলে পরপর পাঁচটি গাড়ি। মৃত্যুর কবলে মা ও ছেলে। গ্যাস কাটার দিয়ে কেটে আটকে পড়া দেহগুলিকে বের করা হয়। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আটজন। মঙ্গলবার সকালের দিকে ২ নং জাতীয় সড়কে অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়রা। পথ নিরাপত্তার দাবিতে বিক্ষোভ দেখানো হয়। পরে পুলিশ গিয়ে অবরোধ তুলে দেয়।

সোমবার বিকেলে লোহার রড বোঝাই লরি আসানসোল থেকে দুর্গাপুরের দিকে যাচ্ছিল। হঠাৎই একটি ডাম্পারে ধাক্কা লেগে চাকা ফেটে যায়। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে জাতীয় সড়কের উলটোদিকের লেনে ঢুকে পড়ে লরিটি। পরপর পাঁচটি গাড়িকে ধাক্কা মারে। দুর্ঘটনার জেরে যাত্রীবাহী একটি চার চাকার গাড়ির উপরে লরিটি উলটে যায়। গাড়িতে ১ শিশু সহ ৪ জন আটকে পড়ে। গ্যাস কাটারের সাহায্যে ২ ঘণ্টার চেষ্টায় আটকে থাকা যাত্রীদের উদ্ধার করা হয়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পথে ২ জনের মৃত্যু হয় বলে জানা গেছে। মৃত যুবকের নাম চিরঞ্জীব মাসিব, মৃত্যু হয়েছে তাঁর মা রেখা মাসিবের। চিরঞ্জীব দুর্ঘটনাগ্রস্ত একটি গাড়ির চালক বলে জানা গিয়েছে। এঁরা প্রত্যেকেই দুর্গাপুরের এ-জোনের বাসিন্দা।

[আরও পড়ুন: ‘করোনা-কোরান দু’টোই ভাইরাস’, ফেসবুকে বিতর্কিত পোস্ট করে ধৃত বিজেপি নেতা]

কিন্তু কেন আচমকা এই দুর্ঘটনা? জানা গিয়েছে, জামুড়িয়ার শ্রীপুর বোগড়া সিনেমা মোড়ের কাছে আসানসোল দিক থেকে দুর্গাপুরগামী একটি রড বোঝাই ডাম্পারে চাকা ফেটে হওয়ায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথমে একটি মারতি ওমনি গাড়িকে ধাক্কা মারে। তারপর ডিভাইডার ভেঙে উলটো রাস্তায় চলে আসে লরিটি। উলটোদিক থেকে অর্থাৎ দুর্গাপুর থেকে আসানসোল যাওয়ার রাস্তার উপর একটি লরিকে ধাক্কা মারলে ওই লরিটি একটি আইটেন গাড়ির উপর পড়ে যায়। পিছন থেকে আসা অন্য একটি বোলেরো গাড়ি উলটে যাওয়া লরির পেছনে ধাক্কা মারে।

[আরও পড়ুন: বসন্তে ফের বৃষ্টির ভ্রুকুটি, সপ্তাহান্তে ভিজতে পারে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গ]

পরপর এতগুলো গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়ায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন প্রত্যক্ষদর্শীরা। প্রাথমিক ধাক্কা সামলে তাঁরা প্রথমে গাড়ির ভিতরে আটক থাকা যাত্রীদের বের করার চেষ্টা চালান। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। উদ্ধারকাজের জন্য ৫টি হাইড্রোলিক ক্রেন ও গ্যাস কাটার আনা হয়। গ্যাস কাটার দিয়ে কেটে আটকে থাকা যাত্রীদের প্রায় ২ ঘণ্টার চেষ্টায় বের করা হয়। আহতদের উদ্ধার করে রানিগঞ্জ ও দুর্গাপুরের বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়। স্থানীয়দের অভিযোগ, জাতীয় সড়কের মতো রাস্তায় কোনও নিরাপত্তা নেই। সেই কারণে এত বড় একটা দুর্ঘটনা ঘটে গিয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement