২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অরূপ বসাক, মালবাজার: সাতসকালেই ভয়ংকর দুর্ঘটনা উত্তরবঙ্গে। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেতুর রেলিং ভেঙে নদীতে ছিটকে পড়ল মাল বোঝাই লরি। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। আহত হয়েছেন ১৩ জন। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে মালবাজারের নেওড়া নদীর সেতুতে।

[আরও পড়ুন: সেলফি তুলতে গিয়ে টয়ট্রেনের ধাক্কায় মৃত রিষড়ার যুবক, দেহ ফেরার অপেক্ষায় পরিবার]

জানা গিয়েছে, প্রতি বৃহস্পতিবার মেটেলি ব্লকের মঙ্গলবাড়িতে ডুয়ার্সের অন্যতম হাট বসে। ভোর হতেই ব্যবসায়ীরা তাদের পসরা সাজাতে শুরু করে। তাই এদিন সকাল ৬টা নাগাদ মালবাজারের ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী জিনিস পত্র নিয়ে একটি লরিতে মঙ্গলবাড়ি হাটে যাচ্ছিলেন। লরি চালাচ্ছিলেন গাড়ির মালিক রতন বসাক। মালবাজার থেকে প্রায় ৫ কিমি দূরে নেওড়া নদীর সেতুর উপর উঠতেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রেলিং ভেঙে প্রায় ১০০ ফুট নিচে পড়ে যায় লরিটি। লরির উপরে থাকা ব্যবসায়ীরা ছিটকে পড়ে নদীর মধ্যে। দুর্ঘটনা স্থলের পাশেই রয়েছে ৪৬ নম্বর এসএসবি ক্যাম্প। দুর্ঘটনার সময় জওয়ানরা তখন শরীর চর্চা করছিলেন। লরিটি নদীতে পড়তেই বিকট শব্দ পেয়ে ছুটে যান জওয়ানরা। প্রাথমিকভাবে তাঁরাই শুরু করে উদ্ধার কাজ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান মাল মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দেবাশীষ চক্রবর্তী ও অন্যান্য পুলিশ আধিকারিকরা ও দমকল। 

acci-2

জওয়ান ও দমকলের চেষ্টায় আহতদের উদ্ধার করে মাল সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তাররা গৌরিশংকর কামতি নামে এক ব্যবসায়ীকে মৃত বলে ঘোষণা করে। রাজা বসাক ও মহম্মদ আলম নামের দুই ব্যক্তির চোট গুরুতর হওয়ায় তাঁদের উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। আহত বাকিরা মাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মাল মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দেবাশীষ চক্রবর্তী বলেন, “সকাল পৌনে ছ’টা নাগাদ কোনও কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ব্রিজের উপর থেকে নিচে পড়ে যায় লরিটি। শুনেছি একজনের মৃত্যু হয়েছে। গাড়িটি উদ্ধারের চেষ্টা করা হচ্ছে।”

[আরও পড়ুন: স্বাভাবিক হওয়ার পথে কাশ্মীর! বৃহস্পতিবার থেকেই যেতে পারবেন পর্যটকরা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং