Advertisement
Advertisement
সহকর্মীদের খুন বিএসএফ জওয়ানের

ছুটি নিয়ে বচসার জের, গুলি চালিয়ে ২ সহকর্মীকে হত্যায় অভিযুক্ত বিএসএফ জওয়ান

মাঝরাতে টহলরত অবস্থায় এই ঘটনা, আটক অভিযুক্ত জওয়ান।

Two BSF jawans shot dead by collegue at North Dinajpur

ছবি: প্রতীকী

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:August 4, 2020 11:15 am
  • Updated:August 4, 2020 11:35 am

শংকরকুমার রায়, রায়গঞ্জ: ছুটি নিয়ে বিবাদের জেরে হত্যালীলা চালাল বিএসএফ (Border Security Force) জওয়ান। তাঁর গুলিতে মৃত্যু হল ২ সহকর্মীর। সোমবার মাঝরাতে উত্তর দিনাজপুরের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ১৪৬ নং ব্যাটেলিয়নের ঘটনায় ছড়াল তীব্র চাঞ্চল্য। ঘটনা ঘিরে রহস্য তৈরি হয়েছে বিএসএফ ক্যাম্পে।

রায়গঞ্জের ভাতুন পঞ্চায়েত এলাকার বসতপুর গ্রামের মালদাখণ্ড বিএসএফ ক্যাম্প। সোমবার মাঝরাতে এলাকায় টহল দিচ্ছিলেন জওয়ানরা। ভোর ৩টের আশেপাশে ছুটি নেওয়া নিয়ে কমান্ডান্ট মহেন্দ্র সিং ভাট্টির সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন অভিযুক্ত জওয়ান উত্তম সূত্রধর। এরপর বচসা এমন পর্যায় পৌঁছয় যে আচমকাই নিজের সার্ভিস রিভলবার থেকে গুলি চালিয়ে দেন উত্তম। ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় কমান্ডান্ট-সহ ২ জনের। জানা গিয়েছে, মহেন্দ্র সিং ভাট্টি ছাড়াও মৃত্যু হয়েছে অনুজ কুমার নামে এক কনস্টেবলের। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: চৈত্র সেলের মতো ‘করোনা সেল’-এর পোস্টার! পুর প্রশাসনের নজরে পড়তেই বিতর্কে বস্ত্র ব্যবসায়ী]

সকালে ঘটনার খবর পেয়ে রায়গঞ্জের বিন্দোলের মালিবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ি থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী পৌঁছয় সীমান্তের মালদাখণ্ড বিএসএফ ক্যাম্পে। এখনও মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়নি বলে খবর। অভিযুক্ত উত্তম সূত্রধরকে আটক করে তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে। তাঁর সার্ভিস রিভলবার থেকে গুলি চলেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন তদন্তকারীরা। সাতসকালে ক্যাম্প লাগোয়া গ্রামের মানুষজন দুই জওয়ানের রক্তাক্ত দেহ দেখে চমকে যান গ্রামবাসীরা। এক বাসিন্দা জানান, ফৌজিদের মধ্যে কী সমস্যা চলছিল, জানা নেই। তবে এমন ঘটনা আগে দেখা যায়নি এই এলাকায়। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: গভীর নিম্নচাপের জেরে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দক্ষিণবঙ্গে, চিন্তা আমফান বিধ্বস্ত এলাকায়]

তবে গুলি ছুটি নিয়ে বচসার জেরেই এমন কাণ্ড নাকি দুই সহকর্মীকে লক্ষ্য করে গুলি চালানোর নেপথ্যে উত্তম সূত্রধরের অন্য কোনও কারণ আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া আরও একটি সংশয়ও তৈরি হয়েছে। কমান্ডান্টের সঙ্গে বচসার জেরে তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছেন উত্তম সূত্রধর, এটা অনেকটাই পরিষ্কার তদন্তকারীদের কাছে। কিন্তু অপর কনস্টেবল অনুজ কুমারকে লক্ষ্য করে গুলি কে চালিয়েছে, তা নিয়ে সংশয় আছে বলে জানা যাচ্ছে। 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ