৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি:  এক বিজেপি কর্মীর বাড়িতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রবল উত্তেজনা ছড়াল পূর্ব মেদিনীপুরে। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে খেজুরির জনকা গ্রাম পঞ্চায়েতের কটকাদেবীচক এলাকায়। বিস্ফোরণের জখম শিশু-সহ দু’জন।

[আরও পড়ুন- ছেলেধরা আতঙ্ক, এবার জোড়া গণপিটুনির ঘটনা ঘটল আলিপুরদুয়ারে]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে আচমকা বোমা বিস্ফোরণ হয় কটকাদেবীচকের লালমোহন মাইতির বাড়িতে। আওয়াজ শুনে স্থানীয় বাসিন্দারা ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন, রক্তাক্ত অবস্থা পড়ে রয়েছে শিশু-সহ দু’জন। সঙ্গে সঙ্গে তাদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনাটি জানাজানি হতেই বাড়িটি ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে এলাকাবাসীর একাংশ। বাড়ির মালিককে গ্রেপ্তার করার পাশাপাশি ওই এলাকায় তল্লাশি চালানোর দাবি তোলেন তাঁরা। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ,  বিজেপি নেতার বাড়ি থেকেই এলাকায় বিস্ফোরক সরবরাহ করা হত। এখনও সেখানে প্রচুর বিস্ফোরক রয়েছে। তাই ওই বাড়িটি ও তার আশপাশের এলাকা তল্লাশি চালাতে হবে পুলিশকে। কোথাও কোনও বিস্ফোরক থাকলে তা উদ্ধার করতে হবে। 

খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে গিয়ে তল্লাশি শুরু করে খেজুরি থানার পুলিশ। স্থানীয়দের জেরা করার পাশাপাশি বিস্ফোরণের ঘটনা জড়িত সন্দেহে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত স্থানীয় বিজেপির তরফে এই ঘটনা সম্পর্কে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। যদিও স্থানীয় তৃণমূল কর্মীদের অভিযোগ, এলাকায় সন্ত্রাস ছড়ানোর জন্য ওই বিজেপি কর্মীর বাড়িতে বোমা মজুত করা হচ্ছিল। কোনও কারণে তা ফেটে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন- একুশের সমাবেশ থেকে ফিরে বিজেপি কর্মীদের বাড়িতে বোমাবাজি, আহত মহিলা-সহ ৬]

 নন্দীগ্রাম আন্দোলনের জেরে একসময়ে খবরের শিরোনামে উঠে এসেছিল পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরি। তখন সিপিএম ও তৃণমূল কর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনায় মাঝে মাঝে উত্তেজনা ছড়াত এলাকায়। তৃণমূল কর্মীদের দাবি, রাজ্যে পালাবদলের পর পরিস্থিতির বদল ঘটে। সংঘর্ষের ঘটনা কিছুটা হলেও কমেছিল। কিন্তু, লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপির ফল দেখে সিপিএমের কর্মী-সমর্থকরা বিজেপিতে গিয়ে ভিড়েছে। তারপর থেকেই এলাকায় উত্তেজনা ছড়ানোর চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং