৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রাজা দাস, বালুরঘাট:  ফেসবুকে আলাপ থেকে প্রেম। প্রেমিকার দেখা করতে গিয়ে ঘটল বিপত্তি। শ্রীঘরে রাত কাটাতে হল দুই যুবককে। শেষপর্যন্ত অবশ্য দু’জনকেই জামিন দিয়েছে আদালত। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে

[আরও পড়ুনবুথে এজেন্ট বসাতে গিয়ে ভাঙড়ে বিক্ষোভের মুখে বিকাশরঞ্জন]

ওই দুই যুবকের বাড়ি পুরুলিয়ার পঞ্চগ্রামে। চাকরি সূত্রে তাঁরা থাকেন চেন্নাইয়ে। পুলিশ জানিয়েছে, ফেসবুকে ওই দুই যুবকের সঙ্গে আলাপ হয় বালুরঘাটের দুই কিশোরীর। ক্রমে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে, একে অপরের প্রেমে পড়ে যান ওই চারজন। প্রেম এতটাই গাঢ় হয় যে, বালুরঘাটের ওই দুই কিশোরীকেই বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন পুরুলিয়ার যুবকেরা। ছুটিতে বাড়িতে ফিরে শুক্রবার বালুরঘাটে প্রেমিকাদের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন ওই দুই যুবক। দিনভর শহরের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ান ওই দুই জোড়া প্রেমিক যুগল। কিন্তু বালুরঘাটে যে থাকার জায়গা নেই! ওই দুই যুবক ঠিক করেছিলেন, রাতটা স্টেশনে কাটিয়ে শনিবার ভোরের ট্রেনে কলকাতায় চলে যাবেন। তারপর সোজা কর্মস্থল চেন্নাই।

পুরুলিয়ার দুই যুবকের দাবি, শুক্রবার রাতে বালুরঘাট স্টেশনে তাঁদের বিদায় জানাতে এসেছিলেন কিশোরী প্রেমিকারা। স্টেশনে একে অপরকে আলিঙ্গন করেন তাঁরা। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। ঘটনাটি নজরে পড়ে যায় স্থানীয়দের। প্রেমিকাদের ছেড়ে দিলেও ওই দুই যুবককে তুলে দেওয়া পুলিশের হাতে। শুক্রবার রাতে থানায় লক-আপে ছিলেন ওই দুই যুবক। শনিবার সকালে আদালতে তোলা হলে, অবশ্য ধৃতদের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন বিচারক। এদিকে আদালত চত্বরে আবার একজনের মানিব্যাগটি চুরি হয়ে যায়। কার্যত লোকের কাছে ভিক্ষা করে কলকাতা ফে্রার টাকা জোগাড় করতে হয় ওই দুই প্রেমিককে। শেষপর্যন্ত শনিবার রাতে ট্রেনে কলকাতা রওনা দেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন:উপনির্বাচনেও অশান্তি, বিজেপি-মোর্চা সমর্থকদের বচসায় উত্তপ্ত দার্জিলিং]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং