১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনে রাজধানী দখলের লড়াইয়ে শেষ হাসি কে হাসবেন, তা নিয়ে চলছে জোর আলোচনা৷ তারই মাঝে নিজের মতামত স্পষ্ট করলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিক যশবন্ত সিনহা৷ মঙ্গলবার আসানসোলে তৃণমূল প্রার্থী মুনমুন সেনের হয়ে প্রচারে যান তিনি৷ এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চান বলেই জানান প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷

[ আরও পড়ুন: বাংলাই চরম শিক্ষা দেবে বিজেপিকে, আরামবাগের সভা থেকে চ্যালেঞ্জ মমতার]

একসময়ে বিজেপির দাপুটে নেতা ছিলেন যশবন্ত সিনহা৷ মন্ত্রিসভাতেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন তিনি৷ বর্তমানে যদিও আর গেরুয়া শিবিরে নেই তিনি৷ মঙ্গলবার তৃণমূলের হয়ে প্রচার করলেন যশবন্ত সিনহা৷ তারকা প্রার্থী মুনমুন সেনের হয়ে আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে প্রচার করেন তিনি৷ নরেন্দ্র মোদির সরকারকে নিয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেন যশবন্ত সিনহা৷ বর্ষীয়ান নেতা বলেন, ‘‘২০১৪ সালে নির্বাচনে জিততে মোদিকে সামনে রেখে লড়াই করার কথা বলা আমার ভুল ছিল। আমি জানতাম না প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর মোদি সেই কাজটাই করবেন যেটা তিনি গুজরাটে করেছিলেন৷ প্রজাতন্ত্রের গলা টিপে ধরেছেন মোদি৷ ২০১৯-র লোকসভা নির্বাচনে আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চাই৷’’

[ আরও পড়ুন: ‘এই বুথ আমার’, পুলিশ আধিকারিককে হুমকি প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়কের]

একসময় গেরুয়া শিবিরের হয়ে কাজ করেছেন যশবন্ত সিনহা৷ কিন্তু আচমকা কেন দল ছাড়লেন তিনি? ভোটপ্রচারে বেরিয়ে সেকথাও স্পষ্ট করলেন বিশিষ্ট রাজনীতিক৷ তিনি বলেন, ‘‘দলে স্বেচ্ছাচারিতা ক্রমশই বাড়ছিল৷ তাই বিজেপি ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না। আজ প্রজাতন্ত্র বাঁচানোর লড়াই। ভুল করেও যদি এই সরকার ফিরে আসে তাহলে আগামী পাঁচ বছরে গণতন্ত্র পুরোপুরি শেষ হয়ে যাবে৷’’ এর আগেও তৃণমূলের হয়ে সওয়াল করেছেন যশবন্ত সিনহা৷ লোকসভা নির্বাচনের আবহে ফের একবার তৃণমূলের পাশেই দাঁড়ালেন বর্ষীয়ান রাজনীতিক৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং