BREAKING NEWS

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিজেপি ক্ষমতায় না এলে জুতোই পরবেন না! ১৮ বছর ধরে পণ নীলমণির

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: April 9, 2021 9:09 pm|    Updated: April 9, 2021 9:10 pm

WB Election: BJP worker from West Bengal Nilmani Dana was not wearing shoes for 18 years | Sangbad Pratidin

ধীমান রায়, কাটোয়া: ১৮ বছর ধরে তিনি কাটাচ্ছেন খালি পায়ে। বঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে (Assembly Election 2021) দল রাজ্যে ক্ষমতায় না আসা পর্যন্ত পায়ে জুতো পড়বেন না। এমনই প্রতিজ্ঞা কেতুগ্রামের নিরোল গ্রামের বাসিন্দা নীলমণি দানা নামে এক বিজেপি (BJP) কর্মীর।

শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা সারাবছর খালি পায়েই ঘুরে বেড়ান ৪৬ বছর বয়সি নীলমণি। শুক্রবারও কেতুগ্রামের উদ্ধারণপূরে দলের বুথভিত্তিক কর্মীসম্মেলনে যোগ দিতে আসেন নীলমণিবাবু। আর এদিনও তাঁকে দেখা গেল সেই খালি পায়েই। এই জুতো না পরার প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে নীলমণিবাবু বলেন, “বিধানসভা নির্বাচনের পর বিজেপি রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে চলেছে। আমার ইচ্ছা আমাদের দলের মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে নতুন জুতো উপহার নিয়ে আমি ফের জুতো পড়া শুরু করব।”

[আরও পড়ুন: নন্দীগ্রামের পর হাওড়া, ভোটে অশান্তি এড়াতে বিশেষ পুলিশ অফিসার নিয়োগ কমিশনের]

বাড়িতে রয়েছেন স্ত্রী, এক মেয়ে ও এক ছেলে। জনমজুরির পাশাপাশি ধূপকাঠি বিক্রি করে সংসার চলে নীলমণিবাবুদের। মেয়ে সুমনা (১৬) নিরোল উচ্চ বিদ্যালয়ে একাদশ শ্রেনীতে পড়াশোনা করে। একই স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্র সুশোভন (১০)। কষ্টের সংসারে সাশ্রয়ের জন্য কাঁথা স্টিচের কাজ করেন নীলমণিবাবুর স্ত্রী রাখিদেবী।

স্বামীর এই পণ প্রসঙ্গে অবশ্য তেমন কিছুই জানেন না তিনি। রাখিদেবীর কথায়, “মেয়ের জন্মের আগে থেকেই দেখছেন উনি জুতো ব্যাবহার করেন না । কারন জিজ্ঞাসা করলে কিছু বলেন না। আগে আমার খারাপ লাগত। এখন গা সওয়া হয়ে গিয়েছে।” বিজেপির বর্ধমান পূর্ব(গ্রামীণ) জেলা কমিটির সভাপতি কৃষ্ণ ঘোষ বলেন, “নীলমণিবাবু আমাদের একনিষ্ঠ কর্মী। আমিও ওনাকে জুতো পড়ার অনুরোধ করেছিলাম। কিন্তু উনি আমার অনুরোধ ফিরিয়ে দিয়েছেন। আমি চাই ওনার সংকল্প, ওনার আশা মে মাসের ২ তারিখের পর যেন পূরণ হয়।”

[আরও পড়ুন: ‘যতক্ষণ CRPF বিজেপির হয়ে কাজ করবে, ততক্ষণ বলব’, নোটিস পেয়েও মন্তব্যে অনড় মমতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে