BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বঙ্গে ভোট উৎসব, রাজনৈতিক দলের প্রচারে বাংলার বানানের দফারফা

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: April 2, 2019 2:37 pm|    Updated: April 2, 2019 2:37 pm

Wrong Bengali spelling in Poll campaign all over the state

রিন্টু ব্রহ্ম, কালনা:  ভোট উৎসবে বাংলা বানানের দফারফা। দেওয়াল লিখন, পোস্টার, ব্যানার থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টে শাসক থেকে বিরোধী সবার প্রচারেই দেখা যাচ্ছে একাধিক ভুল লেখা ও বানান। কোথাও প্রার্থীর নামে ভুল, কোথাও দলের নামে, আবার কোথাও ভুল বানান চোখে পড়ছে নির্বাচন কেন্দ্রগুলির নামেও। বেজায় অসস্তিতে পড়ছে সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলি। বাংলার মাটিতে রাজনৈতিক দলগুলির অবস্থা শক্ত হোক আর না হোক, বাংলা বানানের নিরিখে তাদের অবস্থা যে নড়বড়ে তা দেখেই বোঝা যাচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ার ট্রোলিং করতে ছাড়ছেন নেটিজেনরা। চক্ষুচড়ক সাধারণ মানুষেরও। তৃণমূল-বিজেপি-সিপিএম। ভুল বানান থেকে রেহাই পাচ্ছেন না কেউই।

[আরও পড়ুন: রাজ্যের মন্ত্রীর উদ্দেশ্যে একাধিক হুমকি পোস্টার, শিমুরালিতে চাঞ্চল্য]

বর্ধমান পূর্ব কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী নাম সুনীল কুমার মণ্ডল। কালনার একটি দেওয়াল লিখনে দেখা যাচ্ছে ‘সুনিল’ কুমার মণ্ডল। ‘সু’-এর ‘নীল’-এর ‘ঈ’ কারকেই করে দেওয়া হচ্ছে ‘ই’ কার। কালনা শহরে বিজেপির দেওয়াল লিখনে ‘কালীঘাট’ লিখতে গিয়ে লেখা হয়েছে ‘কালিঘাট’। আবার বর্ধমান পূর্ব কেন্দ্রের বিজেপির প্রার্থী পরেশ চন্দ্র দাসের নামে আগে লেখা হয়েছে ‘মনোনীয়’। আবার সিপিআইএম একটি ফেসবুক পোস্টে বর্ধমান শহর এরিয়া কমিটির নেতা ‘তরুণ’ রায়ের জায়গায় লেখা ‘তরুন’ রায়।
রাজ্যব্যাপী ভুল বানানে ভরা পোস্টার-ব্যানার ঘুরে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তৃণমূল কংগ্রেসের তারকা প্রার্থী মুনমুন সেনের সমর্থের লেখা একটি দেওয়ালে, ‘তৃণমূল’ বানানটাই ভুল! লেখা রয়েছে, ‘তৃনমূল’। বর্ধমান-দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী মমতাজ ‘সংঘমিতা’-এর পরিবর্তে লিখে ফেলছেন ‘সংঘমিত্রা’। তৃণমূলের দেওয়াল লিখনে ‘রূপশ্রী’ ও ‘রূপকার’ নয় লেখা হয়েছে ‘রুপশ্রী’ ও ‘রুপুকার’। রয়েছে আরও একাধিক ভুল। যদিও এই সমস্ত ভুলত্রুটিগুলোর জন্য ক্ষমাও চাইছেন রাজনৈতিক দলগুলি। তাদের সাফাই, দেওয়াল লিখনে যে বা যাঁরা যুক্ত থাকেন, তাঁরা বেশির ভাগই স্বল্পশিক্ষিত। তাঁদের বাংলা ভাষায় সম্পর্কে জ্ঞান কম থাকাতেই এই ভুল হয়ে যাচ্ছে। যা চোখে পড়লেই শুধরে নেওয়া হচ্ছে।  

ছবি: মোহন সাহা

[ আরও পড়ুনবিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য কাটা হবে ১০ হাজার গাছ! প্রতিবাদে সরব পুরুলিয়ার আদিবাসীরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে