BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘সংক্রমণ ঠেকাতে জাপানে জারি হবে জরুরি অবস্থা’, জানালেন প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 6, 2020 5:36 pm|    Updated: April 6, 2020 7:36 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে জাপানে। রবিবার প্রশাসনের তরফে দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত সেখানে ৪ হাজার ৫৬৩ জন এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গিয়েছেন ১০৪ জন। এরপরই সেখানে জরুরি অবস্থা জারি করার দাবি জানান চিকিৎসক ও বিভিন্ন প্রদেশের গর্ভনররা। তাঁদের দাবির ভিত্তিতে মঙ্গলবার থেকে জাপানের বেশিরভাগ জায়গায় জরুরি অবস্থা জারি করা হবে বলে জানালেন প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত এক সপ্তাহে নোভেল করোনা ভাইরাস (Corona Virus) আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা আচমকা বৃদ্ধি পেয়েছে জাপানে। যার মধ্যে রাজধানী টোকিও, ওসাকা ও কোবের মত ঘন জনবসতি এলাকাগুলির অবস্থা খুবই সঙ্গীন হয়ে পড়ে। এই পরিস্থিতিতে ওই প্রদেশগুলির গর্ভনররা প্রধানমন্ত্রীকে শিনজো আবেকে দেশে জরুরি অবস্থা জারি করার জন্য আবেদন জানান। কিন্তু, অর্থনীতির উপর এর বিরাট প্রভাব পড়বে বলে দাবি করে তাঁকে জরুরি অবস্থা জারি না করার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন শিল্পপতিরা। যদিও তাঁদের সেই প্রচেষ্টা সার্থক হল না।

[আরও পড়ুন: ‘যুদ্ধজয় হবেই’, করোনা আবহে জাতির উদ্দেশে প্রথাভাঙা ভাষণে বার্তা রানি এলিজাবেথের ]

দেশের পরিস্থিতি ক্রমশ ভয়াবহ আকার ধারণ করার আগেই পরিস্থিতি সামাল দেওয়া চেষ্টা করলেন শিনজো আবে। সোমবার জানালেন, মঙ্গলবারই জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা করা হবে। আর বুধবার থেকে তা কার্যকর হবে। তবে দেশের সব জায়গায় জরুরি অবস্থা জারি করা হচ্ছে না। কোবে, ওসাকা ও টোকিও শহরের মতো ঘন জনবসতি এলাকাগুলিতেই জরুরি অবস্থা জারি করা হবে। তবে ইউরোপের দেশগুলির মতো লকডাউন করা হবে না।

[আরও পড়ুন: আসছে ‘সেকেন্ড ওয়েভ’? চিনে ফের করোনা সংক্রমণে সিঁদুরে মেঘ দেখছেন বিশেষজ্ঞরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement