১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ১৮ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিঃসন্দেহে টলিউড ইন্ডাস্ট্রির জন্য সুখবর। এতদিন বলিউড কিংবা দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে কন্টেন্ট ধার করে বাংলা সিনেমা তৈরি হত। কিন্তু এবার তার উলাটপুরাণ ঘটছে। বাংলা ছবির গল্প-বিষয়বস্তু এবং গল্প বলার ভঙ্গিতে মেতে একের পর এক সিনেমা তৈরি হতে চলেছে দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে।

দিন কয়েক আগেই সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ‘ভিঞ্চি দা’র তামিল রিমেক হওয়ার খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। তারপর শোনা গেল অভিনেতা-লেখক রুদ্রনীল ঘোষের লেখা ছবি ‘চকোলেট’ দক্ষিণী যাত্রা করতে চলেছে। যে সুখবর প্রকাশ্যে নিয়ে এসেছিলেন রুদ্রনীল স্বয়ং। এবার সেই তালিকাতেই সংযোজন হল আরও তিনটে বাংলা ছবির নাম। পরিচালক অতনু ঘোষের ‘অ্যাবি সেন’ ও ‘ময়ূরাক্ষী’ এবং রাজ চক্রবর্তীর ‘পরিণীতা’। তবে এক্ষেত্রে উল্লেখ্য, ঋত্বিক চক্রবর্তী এবং শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় অভিনীত পরিচালক রাজের ‘পরিণীতা’র কিন্তু বলিউড রিমেক হতে চলেছে। আর সেই ছবিতে ঋত্বিক-শুভশ্রীর চরিত্রে দেখা যেতে পারে বলিপাড়ার প্রথম সারির কোনও অভিনেতা-অভিনেত্রীকে। যা রীতিমতো বাংলা বিনোদন ইন্ডাস্ট্রির ক্ষেত্রে বড় খবর। যার সূচনা হয়েছিল বাংলা ইন্ডাস্ট্রির খ্যাতনামা পরিচালকজুটি শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়-নন্দিতা রায়ের হাত ধরে। শিবু-নন্দিতা পরিচালিত ‘রামধনু’, ‘হামি’ এবং ‘কণ্ঠ’র গল্প দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে যাত্রা করেছিল।  সৃজিতের ‘রাজকাহিনী’ও হিন্দিতে তৈরি হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: ‘টেকো’র মুক্তি ঘিরে জটিলতা, বিপাকে পরিচালক অভিমন্যু! ]

‘পরিণীতা’র রিমেক প্রসঙ্গে রাজ চক্রবর্তী জানিয়েছেন, এই ছবি হিন্দিতে তৈরী করার জন্য ইতিমধ্যেই মুম্বইয়ের এক বড় প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে কথাবার্তা হয়েছে তাঁর। যদিও কোন প্রযোজনা সংস্থা, তা খোলসা করেননি রাজ। তবে এও উল্লেখ করেছেন যে, ‘পরিণীতা’র হিন্দি রিমেকে অভিনয় করতে পারেন পারে বড় কোনও তারকা। আপাতত অর্থনৈতিক লেনদেন নিয়ে কথা চলছে। যদি সব ঠিকঠাক থাকে, তাহলে এই প্রথম রাজ চক্রবর্তীর কোনও ছবি বাংলা ব্যতীত অন্য ভাষায় তৈরি হবে।

অন্যদিকে পরিচালক অতনু ঘোষ জানান, সৌমিত্র এবং প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় অভিনীত ‘ময়ূরাক্ষী’ মালয়ালম ভাষায় বানানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তাঁকে। আবীর চট্টোপাধ্যায় এবং রাইমা সেন অভিনীত ‘অ্যাবি সেন’ তৈরি হতে পারে মারাঠি ভাষায়। রুদ্রনীল ঘোষের গল্প নিয়ে তৈরি ২০১৬ সালের বাংলা ছবি ‘চকোলেট’ তামিল এবং তেলুগু এই দু’টি ভাষাতেই তৈরি হচ্ছে। নেপথ্যে বালা রাজশেখরুনি। ফিল্মি দুনিয়াতেও যে গ্লোবালাইজেশনের সূচনা হয়ে গিয়েছে, তা বলাই বাহুল্য।

[আরও পড়ুন: শিশু শিল্পীকে অশ্রাব্য গালিগালাজ, নেটদুনিয়ায় কটাক্ষের শিকার অভিনেত্রী স্বরা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং