BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

রাজনীতিতে যোগ দিচ্ছেন বিবেক! কী বললেন সেলুলয়েডের মোদি?

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 9, 2019 5:52 pm|    Updated: April 17, 2019 3:59 pm

Bollywood actor Vivek Oberoi on politics joining row

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজনীতির ময়দানের সঙ্গে সেলেবদের যোগাযোগ নতুন কিছু নয়৷ উর্মিলা মাতণ্ডকর, হেমা মালিনী, শত্রুঘ্ন সিনহা – কে নেই সেই তালিকায়? বিবেক ওবেরয়ও নাকি কোনও রাজনৈতিক দলে যোগ দিতে পারেন, ভোটের আগে মাথাচাড়া দিয়েছিল সেই জল্পনা৷ ইন্ধন জুগিয়েছিল তাঁর সাম্প্রতিক কাজ – ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’তে অভিনয়৷ সুপ্রিম কোর্টের ছাড়পত্র পেয়ে প্রথম দফার নির্বাচনের দিনই মুক্তি পাবে ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’৷ তাতেই স্বস্তিতে গোটা টিম৷ খোশমেজাজে রাজনীতির যোগদানের কানাঘুষোকেই মিথ্যা বলে দাবি করলেন সেলুলয়েডের প্রধানমন্ত্রী৷ কেরিয়ারের দ্বিতীয় ইনিংস হিসাবে আপাতত রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার কোনও পরিকল্পনা নেই বলেই জানিয়ে দিলেন বিবেক৷

[ আরও পড়ুন: ‘বোন বললে ভোটে লড়ব’, নির্বাচনের মুখে বার্তা সঞ্জয় দত্তের]

নির্বাচনী উত্তাপে ফুটছে গোটা দেশ৷ এই আবহে মুক্তি পাচ্ছে ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’৷ বহুচর্চিত সেই ছবির নাম চরিত্রে অভিনয় করছেন বিবেক ওবেরয়৷ সিনেমা নিয়ে যেমন আলোচনা চলছে, তেমনই সমানভাবে আলোচ্য বিবেক ওবেরয়৷ নির্বাচনে লড়ার প্রসঙ্গ নিয়ে বারবার নানা প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে অভিনেতাকে৷ জল্পনা তৈরি হয়েছিল হয় তো রাজনীতির ময়দানে দেখা যাবে তাঁকে৷ তবে সেই জল্পনা ওড়ালেন বিবেক৷ তিনি বলেন, ‘‘নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য বিভিন্ন জাতীয় এবং আঞ্চলিক দল থেকে ভোটে লড়ার প্রস্তাব পেয়েছি৷ কিন্তু আমি প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছি৷ কারণ, এই মুহূর্তে আমি ভাল করে অভিনয় করতে চাই৷ সমাজের জন্য কাজ করতে চাই৷ তবে রাজনৈতিক দলের মাধ্যমে একেবারেই নয়৷’’ অভিনেতা এও বলেন, ‘‘পর্দায় প্রধানমন্ত্রী হিসাবে কাজ করছি, কেন সাংসদ হওয়ার জন্য লড়ব?’’

[ আরও পড়ুন: হিন্দুত্ব নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, উর্মিলার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা বিজেপির]

ছবির মাধ্যমেই নাকি মোদির প্রচার করতে চাইছে টিম ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’, এই অভিযোগে বিরোধীরা বারবারই সুর চড়িয়েছে৷ নিন্দুকদের সেই সমালোচনারও জবাব দেন সেলুলয়েডের প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, ‘‘দেওয়ালি, ইদ কিংবা ক্রিসমাসের সময় ছবি মুক্তি পেলে কেউ কোনও প্রশ্ন করেন না৷ নির্বাচনও গণতন্ত্রের উৎসব৷ পাঁচ বছর অন্তর আসে৷ তাই আমার মনে হয়, ভোটের সময় ছবি মুক্তির সিদ্ধান্তে কোনও ভুল নেই৷’’ কংগ্রেসের বিরোধিতায় ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’র মুক্তি নিয়ে তৈরি হয়েছিল জটিলতা৷ কিন্তু সোমবারের শুনানিতে সেই দাবি খারিজ করে দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত৷ জানিয়ে দেওয়া হয়, নির্ধারিত সূচি মেনে প্রথম দফা লোকসভা নির্বাচনের দিন আগামী ১১ এপ্রিলই মুক্তি পাবে সেলুলয়েডের মোদি৷ ভোটের আবহে এই ছবি দর্শকদের প্রশংসা কুড়োয় নাকি সমালোচনার শিকার হয়, সেটাই এখন দেখার৷

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে