২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের #MeToo অভিযুক্ত বলিউডের খ্যাতনামা সংগীত পরিচালক অনু মালিককে একহাত নিলেন গায়িকা সোনা মহাপাত্র। এমনকী, ‘সেক্স রিহ্যাবে’ অর্থাৎ যৌন নেশামুক্তি কেন্দ্রে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েও তাঁকে কটাক্ষ করেন সোনা। বলিউডের দুই বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বের তরজায় ফের উত্তাল নেটদুনিয়া।

বলিউডের খ্যাতনামা সংগীত পরিচালক অনু মালিুকের উপর এযাবৎকাল একাধিক #MeToo অভিযোগ আছড়ে পড়েছে। গায়িকা সোনা মহাপাত্র থেকে বলিউডের আরও অনেকে গায়িকাই অশ্লীলতার অভিযোগ এনেছেন এই সংগীত পরিচালকের বিরুদ্ধে। কখনও স্টুডিওতে ডেকে উঠতি গায়িকাকে যৌন হেনস্তা, তো আবার সোনা মহাপাত্রের মতো গায়িকার সঙ্গে অশালীন আচরণ… এহেন একাধিক অভিযোগে জেরবার হয়েছেন অনু মালিক। তবে যাবতীয় অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়ে সেভাবে কিন্তু এসবের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে দেখা যায়নি তাঁকে। কিন্তু সমস্ত অভিযোগের জবাব দিয়ে গত ১৪ নভেম্বর সোশ্যাল মিডিয়ায় আত্মপক্ষ সমর্থনে একটি পোস্ট করেন অনু মালিক। আর সেই পোস্টের পরিপ্রেক্ষিতেই গায়িকা সোনা মহাপাত্র ফের একহাত নেন তাঁকে। এমনকী, ‘সেক্স রিহ্যাবে’ যাওয়ার পরামর্শও দেন।

[আরও পড়ুন: সুস্থ থাকার ‘টনিক’ নিয়ে আসছেন দেব, উত্তরবঙ্গে শুরু শুটিং ]

দিন দুয়েক আগে অনু নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, “একবছর ধরে যাবতীয় মিথ্যা অভিযোগ চুপ করে শুনে যাচ্ছিলাম। তবে এখন মনে হচ্ছে চুপ করে ছিলাম বলেই লোকে নিজের মতো করে যা ইচ্ছে তাই ভেবে নিয়েছে। দুই মেয়ের বাবা আমি। স্বপ্নেও কোনও দিন এরকম ঘৃণ্য কাজ করার কথা ভাবতে পারব না আমি।” এই পোস্টের জবাবে সোনা একটা লম্বা পোস্ট করে লিখেছেন, আপনি দয়া করে ‘সেক্স রিহ্যাবে’ যান। আর সন্তানদের বলুন আপনার পরিবারের জন্য টাকা কামাতে। আপনি বরং বিরতি নিয়ে যৌন নেশামুক্তি কেন্দ্রে কোনও মনস্তত্ত্ববিদের পরামর্শ নিন।” 

সোনা মহাপাত্র আরও বলেন, “১৩০ কোটি মানুষের বাস এদেশে। তাঁদের সবাইকেই যে রিয়েলিটি শোয়ের বিচারক হয়ে সংসার চালাতে হবে এমন কোনও কথা নেই! বিশেষত যে উঠতি প্রতিভারা আসছে, তাদের নিরাপত্তা নষ্ট করে তো নয়ই। জাতীয় টিভি চ্যানেলে আসার কোনও অধিকার আপনার নেই। আর আপনার মতো মানুষ কখনওই কারও রোল মডেল হতে পারে না। সেই যোগ্যতাও আপনার নেই। আর আপনি দুই কন্যাসন্তানের বাবা বলেই যে এরকম ঘৃণ্য কাজ করতে পারেন না, তা মোটেই প্রমাণিত হয় না। এর বিচার একদিন ঠিকই হবে।”

[আরও পড়ুন:‘ঐশ্বর্যও আপনাকে দেখলে লজ্জা পাবেন’, মেকওভার করে হাসির খোরাক রানু]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং