২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনে ভারতে আটকে হলিউড অভিনেতা, কলা খেয়ে ভিখারির মতো দিন কাটাচ্ছেন

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 31, 2020 1:25 pm|    Updated: May 31, 2020 1:25 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছেলের সঙ্গে ভারতে এসেছিলেন ঘুরতে। লকডাউনে আটকে পড়েছেন। হাতে যা টাকা ছিল, সর্বস্ব শেষ। অবস্থা এমনই সঙ্গীন যে, এখন জয়পুরের এক হোস্টেলে বাদাম আর কলা খেয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে এই মার্কিন অভিনেতাকে। জিওফ্রে গিলানো, যাঁকে ‘দ্য স্করপিয়ন কিং’, ‘দ্য ফিফথ এক্সিকিউশন’ থেকে ‘স্মিং’-এর মতো একাধিক জনপ্রিয় হলিউড ছবিতে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে, লকডাউনের জেরে ভারতে আটকে পড়ে, বর্তমানে সেই অভিনেতাকেই কিনা ভিখারি দশায় দিন গুজরান করতে হচ্ছে!

৩ মার্চ ছেলে ইডেনকে সঙ্গে নিয়ে জয়পুরের একটি হোটেলে উঠেছিলেন তিনি। এর মাঝেই শারীরিক কিছু সমস্যা থাকায়, একাধিকবার তাঁকে ডাক্তার দেখাতে হয়েছে। লাইপোসাকশন সার্জারিও করাতে হয়েছে। দাঁতেরও কিছু সমস্যা ছিল। চিকিৎসার পাশাপাশি ১২ বছর বয়সি ছেলেকে নিয়ে তাজমহল ঘুরে এসেছেন। ভেবেছিলেন, ভারতে আর সপ্তাহ দুয়েক থেকে ছেলেকে থাইল্যান্ডে পৌঁছে দিয়ে নিজে নিউ ইয়র্কে ফিরে যাবেন। কিন্তু তার মাঝেই জাঁকিয়ে বসল করোনা। কোভিডের কোপে সারা দেশজুড়ে লকডাউন জারি হল। ১৮ মার্চ বন্ধ হল আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা। সিল করে দেওয়া হল দেশের সব সীমান্ত। না থাইল্যান্ড, না মার্কিন মুলুক, কোথাও যাওয়ার উপায় নেই। আটকে গেলেন হলিউড অভিনেতা।

[আরও পড়ুন: টলিউডে সর্বাধিক ৩৫জনকে নিয়ে শুটিং হবে, কড়া নির্দেশিকা রাজ্য সরকারের]

২ হাজার ডলার নিয়ে এসেছিলেন জিওফ্রে গিলানো। ভেবেছিলেন ২ সপ্তাহ থাকতে এর থেকে বেশি টাকা লাগবে না ভারতে। তাই এটিএম কার্ডও নিয়ে আসেননি সঙ্গে। এরপরই লকডাউন বাড়তে থাকল। হাতে থাকা টাকাও শেষ। জয়পুরের হোটেল থেকে বেরিয়ে যেতে বলা হল তাঁদের। এক স্যাঁতস্যাঁতে পর্যটক আবাসে ছেলের সঙ্গে ঠাঁই নিলেন হলি অভিনেতা। এরপরই শুরু হল চরম দুর্দশা। খাবার নেই। বাকি প্রয়োজনীয় জিনিস তো দূর অস্ত! চিনে বাদাম আর কলা খেয়ে রয়েছেন দীর্ঘ দিন যাবৎ। নাহলে ত্রাণের খাবারই সম্বল এখন তাঁদের। ওই পর্যটক আবাসের বিলও বকেয়া থাকায় মাঝেমধ্যেই ছেড়ে দেওয়ার হুমকি শুনতে হচ্ছে ‘দ্য স্করপিয়ন কিং’ অভিনেতাকে। আর দিন কয়েক এভাবে থাকলে, এরপর রাস্তায় গিয়েই বসতে হবে খ্যাতনামা হলিউড অভিনেতাকে, জানিয়েছেন নিজেই।

এদিকে ছেলে থাইল্যান্ডের বাসিন্দা, আর তাঁর মার্কিন নাগরিকত্ব। লকডাউন উঠলেও ১২ বছরের ছেলেকে ছেড়ে যেতে পারবেন না তিনি। প্রয়োজন অর্থ সাহায্যের। নিজেদের পরিস্থিতির বর্ণনা দিতে গিয়ে গিলানো বললেন, “মনে হচ্ছে যেন, টাইটানিকে বসে রয়েছি, কিন্তু আমার কাছে লাইফবোট নেই!”

[আরও পড়ুন: হিন্দু ধর্ম নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য, মহিলা কমেডিয়ানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করল ইসকন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement