২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দূষণে মুখ ঢেকেছে দিল্লি। ধোঁয়াশায় মুড়েছে রাজপথ। বাতাসে ভাসছে বিষ। বিশুদ্ধ বায়ু? সে তো অতীত! হাঁসফাঁস দশা দিল্লিবাসীর। হাজারের গণ্ডি ছাড়িয়েছে বাতাসের গুণমাণের সূচক। কপালে ভাঁজ পরিবেশবিদদের। কারণ, প্রাণভরে শ্বাস নেওয়া দায় হয়েছে দিল্লিতে। দীপাবলির পর যেন সেই দূষণ আরও বিকটাকার ধারণ করেছে। বাতাসে ধূলিকণার পরিমাণ এতটাই বেড়েছে যে রোজ অসুস্থ পড়ছেন শত শত দিল্লিবাসী। আর দিল্লির সেই ভয়াবহ দূষণই ভাবিয়ে তুলেছে হলিউডের প্রখ্যাত অভিনেতা লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিওকে।

‘গ্যাস চেম্বার’ দিল্লি নিয়ে কপালে ভাঁজ পড়েছে হলিউড তারকা তথা পরিবেশপ্রেমী লিওর। ১৯৯৮ সালেই পরিবেশ দৃষণ রোধ করার জন্য নিজে একটি সংগঠন খুলেছিলেন। জলবায়ু পরিবর্তন ভাবিয়ে তোলায় একাধিকবার বিশ্বের নানা জায়গার পরিবেশবিরোধী কর্মসূচী নিয়ে স্বর উঁচিয়েছেন। এমনকী, চেন্নাইয়ের খরা পরিস্থিতি, ‘কাবেরি কলিং’ ইস্যু যাবতীয় বিষয়ে দূরদেশে থেকেই সরব হয়েছেন লিওনার্দো। এবার দিল্লির দূষণ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন অভিনেতা।

[আরও পড়ুন: গুজবে কান দেবেন না, শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিতর্ক উড়িয়ে বললেন নুসরত ]

অস্কারজয়ী অভিনেতা লিও ইনস্টাগ্রামে বেশ কিছু ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, “সম্প্রতি দেড় হাজারেরও বেশি সংখ্যক দিল্লিবাসী ইন্ডিয়া গেটে জড়ো হয়েছিলেন। তাঁদের দাবি, রাজধানীর বায়ুদূষণ রোধে অবিলম্বে ব্যবস্থা নিতে হবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেব অনুযায়ী, বায়ু দূষণের ফলে ভারতে প্রতি বছর ১৫ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়। ভারতে ভিন্ন বয়সের মানুষেরা দূষণ বিরোধী আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছেন।” এমনকী ভারতের বায়ুদূষণ রোধের জন্য ৪ দফা কর্মসূচীর কথাও বলেছেন লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও।   

হলিউডের ডাকসাইটে অভিনেতা লিওনার্দো দি ক্যাপ্রিও যে পরিবেশপ্রেমী, তা বোধহয় অল্পবিস্তর অনেকেরই জানা। পরিবেশদূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে আগাগোড়াই সরব তিনি। জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষেত্রে যথাযথ ব্যবস্থাপনার অভাবে এর আগে একাধিকবার মার্কিন প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন লিওনার্দো। তাঁর বক্তব্য, “গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের জন্য যেভাবে জলবায়ুর পরিবর্তন হচ্ছে, অচিরেই সারা বিশ্বের জন্য দুর্দিন আসতে চলেছে। তাই এই অবস্থার মোকাবিলা করার জন্য সবার উচিত এগিয়ে আসা।” অস্কারের মঞ্চে ‘দ্য রেভেনান্ট’ ছবির জন্য পুরস্কার নিতে গিয়েও তাঁর গলায় শোনা গিয়েছিল পরিবেশ নিয়ে চিন্তার সুর। লিও বলেছিলেন, “বিশ্বের বর্তমান পরিস্থিতি মোটেই হেলাফেলা করার মতো নয়।”

[আরও পড়ুন: পশু সুরক্ষায় কড়া আইন চাই, লোকসভায় সরব সাংসদ মিমি ]

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

#Regram #RG @extinctionrebellion: Over 1500 citizens gathered in at India Gate, in New Dehli, to demand immediate action on the cities hazardous pollution levels.⁣ ⁣ According to the World Health Organisation, air pollution in India is estimated to kill about 1.5 million people every year; these statistics make air pollution the fifth-largest killer in India. ⁣ ⁣ People of all ages joined the demonstration, which succeeded to directly trigger action for Indian citizens:⁣ 1. The Indian Prime Ministers office set up a special panel to address the issue, within a few hours of the protest. The panel is due to report on the issue within 2 weeks.⁣ 2. The Supreme Court of India asked the Central Government and respective state governments to fix the crop and waste burning issue of Dehli within a week. ⁣ 3. The Center accepted that Green Fund will be used to combat toxic air pollution. ⁣ 4. The Indian Prime Minister asked the Agriculture Ministry to distribute equipment urgently so that crop burning is no longer necessary. ⁣ ⁣ Despite these promises, the air is still unsafe and activists will keep the pressure on until the air pollution reaches safe levels. ⁣ ⁣ The protest was organised by a collaboration of movements; @xrebellionind @LetMeBreathe_In @FridaysForFutureIndia_ along with other activists. ⁣ ⁣ Photography by Arjun Mahatta and co, via @FridaysForFuture ⁣ ⁣ #RightToBreathe #ExtinctionRebellion #IndiaGate #SolutionNotPollution #ActNow #RebelForLife

A post shared by Leonardo DiCaprio (@leonardodicaprio) on

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং