১৪ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৮ মে ২০২০ 

Advertisement

সুজয় ঘোষের হাত ধরে নতুন ওয়েব সিরিজে যিশু সেনগুপ্ত

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 17, 2019 7:47 pm|    Updated: July 17, 2019 7:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চোখে কালো ফ্রেমের চশমা। পাট পাট করে আঁচড়ানো চুল। এক্কেবারে ‘সুবোধ বালক’ গোছের লুক। যিশু সেনগুপ্তের নতুন ওয়েব সিরিজ ‘টাইপরাইটার’-এ এমনভাবেই ধরা দিলেন অভিনেতা। সৌজন্যে পরিচালক সুজয় ঘোষ। আগামী শুক্রবার অর্থাৎ ১৯ জুলাই নেটফ্লিক্সে আসছে যিশু সেনগুপ্ত এবং পূরব কোহলি অভিনীত ‘টাইপরাইটার’।

[আরও পড়ুন:  বিহারে করমুক্ত হল ‘সুপার ৩০’র প্রদর্শন, আপ্লুত হৃতিক রোশন]

রহস্য-রোমাঞ্চের মোড়কে তৈরি এই ‘টাইপরাইটার’। তার সঙ্গে উপরি পাওনা ভৌতিক কাণ্ডকারখানা এবং গা ছমছমে ভাব। তবে টুইস্ট রয়েছে যিশুর চরিত্রে। সাদামাটা লুক। দেখলেই বোঝা দায় যে তাঁর মধ্যেও অপরাধপ্রবণতা রয়েছে। আর পরিচালক সুজয় ঠিক এমন চেহারার অন্তরালেই রেখেছেন যাবতীয় কাহিনি। যার আভাস মিলেছে ‘টাইপরাইটার’-এর ট্রেলারে। গল্পে যিশু একজন অঙ্কের শিক্ষক। যার নাম অমিত। গোয়ার এক স্কুলে পড়ান। তবে, ‘টাইপরাইটার’-এর ছোট টিজারে তাঁর চরিত্রের একটু খলনায়কত্বের ইঙ্গিতই পাওয়া গেল। বেসিনে রক্তমাখা হাত ধুচ্ছেন যিশু। কার রক্ত? তবে কি খুন করলেন কাউকে? কাকেই বা খুন করলেন অঙ্কের শিক্ষক অমিত? ট্রেলার উসকে দিয়েছে সেই ভাবনা। তবে অপেক্ষার অবসান ঘটছে ১৯ জুলাই। কারণ, সেদিনই মুক্তি পাচ্ছে সুজয় ঘোষ পরিচালিত ‘টাইপরাইটার’।

গোয়ার এক পুরনো বাংলো বাড়ি। শুধু বাড়ি বললে হয়তো ভুল হবে পরিত্যক্ত বাড়ি। বেশ কয়েক বছর আগেকার কোনও অন্ধকার ঘটনার সাক্ষী সে। গল্পের শুরু তিন খুদেকে দিয়ে। যারা ভূত ধরতে মরিয়া। গোয়াতে আসা নতুন বন্ধুর বাড়িতে বাকি দু’জন রহস্যের গন্ধ পায়। ব্যস, শুরু হয় তাদের অভিযান। সেই রহস্যময় বাড়িতেই দিনের পর দিন ঘটতে থাকে নানা কাণ্ডকারখানা। একজোড়া খুন হয়ে যায়। সত্যিই কি গোয়ার সেই বাড়ি হানাবাড়ি, নাকি এর নেপথ্যে রয়েছে অন্য কোনও রহস্য? জট খুলবে আগামী শুক্রবারই। তবে সুজয় ঘোষের ক্রাইম থ্রিলার গল্পে সেই পরিত্যক্ত বাড়িতে পাওয়া এক টাইপরাইটার বিশেষ ভূমিকা পালন করেছে।

[আরও পড়ুন:  প্রজাপতি রহস্য উদঘাটনে আসছে শান্তিলাল, মিলল তার গোয়েন্দাগিরির ঝলক]

মোট ৫টি পর্বের ওয়েব সিরিজ। পূরব কোহলি এক পুলিশ অফিসারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যাবে পালোমি ঘোষকেও। উল্লেখ্য, এইপ্রথম ওয়েব সিরিজ পরিচালনা করলেন সুজয় ঘোষ। যার জন্য নিজেকে পরিচালক হিসেবে নিজেকে ভেঙেছেন তিনি। লেখালেখির স্টাইল বদলেছেন। ‘কাহানি’, ‘বদলা’র মতো ছবি বানিয়েও অন্যরকম পথে হেঁটেছেন টাইপরাইটার-এর জন্য। তাঁর কথায়, যখন আমি কোনও গল্পের চরিত্র আঁকি, তখন পুরোপুরি চরিত্রটির মধ্যে ঢুকে যাই। যিশুকেও অমিতের চরিত্রে ভেবেছিলাম সেইকারণে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement