২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মোদির বায়োপিক নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই মুক্তি পেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বায়োপিকের ট্রেলার। লোকসভা ভোটের প্রাক্কালে একদিকে যখন মোদির বায়োপিক মুক্তি আটকাল, অন্যদিকে তখন এই মরশুমেই মুক্তি পেল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বায়োপিকের ট্রেলার। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক এবং ব্যক্তিগত জীবনের উপর আলোকপাত করেই তৈরি হয়েছে ছবির প্লট। ছবির নাম ‘বাঘিনী’। পরিচালনা করেছেন নেহাল দত্ত। জানা গিয়েছে, ৫ মে মুক্তি পাচ্ছে ছবি।

[আরও পড়ুন:  অনুমোদন ছাড়া নমো টিভিতে হবে না রাজনৈতিক প্রচার, নির্দেশ কমিশনের]

‘বাঘিনী’ তৈরির আগে তিন বছর ধরে গবেষণা করেছেন নেহাল। তৃণমূল সুপ্রিমোর সম্পর্কে সংবাদপত্রের যত খবর ছিল সব পড়ে ফেলেছিলেন। বাদ দেননি, ভিডিও ফুটেজ এবং তাঁর বায়োগ্রাফিও। সব ঘেঁটে তবেই ময়দানে নেমেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বায়োপিক তৈরির জন্য। যদিও, বায়োপিক বলতে নারাজ পরিচালক। তাঁর মতে, এই প্রয়াস মুখ্যমন্ত্রীর জীবনের উপর আলোকপাত করার প্রচেষ্টা মাত্র। ছবিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন রুমা চক্রবর্তী। পরিচালকের কথায়, ছোট থেকেই অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো সেই মেয়ের প্রতিবাদী সত্ত্বা ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করা হয়েছে ছবিতে।

[আরও পড়ুন:  কপিল শর্মার শোয়ে মেজাজ হারালেন আলিয়া, রসিকতায় ‘অপমানিত’ অভিনেত্রী]

‘বাঘিনী’র শুটিং হয়েছে ২০১৫ সালেই। কলকাতা এবং শহরতলির বেশকিছু অংশে শুটিং হয়েছে। সিঙ্গুর-নন্দীগ্রাম এবং রাইটার্স বিল্ডিং ইস্যুর ছোঁয়াও রয়েছে ছবিতে। আর তার প্রমাণ মিলল ট্রেলারে। ২০১৬-তেই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল এই ছবির। কিন্তু কিছু অভ্যন্তরীণ সমস্যার জন্য তা আর মুক্তি পায়নি। তবে অবশেষে, মুক্তি পেল ‘বাঘিনী’র ট্রেলার। ছোটবেলা থেকেই তিনি যে ছবি আঁকতে ভালবাসেন, সেই বিষয়টিও তুলে ধরেছেন পরিচালক নিজের ফ্রেমে। এছাড়াও, ছবিতে বাস্তবিক কোনও রাজনৈতিক দলের নাম ব্যবহার করা হয়নি বলেই জানিয়েছেন পরিচালক। বিতর্ক থেকে দূরে থাকতেই পরিচালকের এহেন সিদ্ধান্ত। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং