BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সচেতনতার বার্তা দিতে ‘বেলা চাও’-এর অনুকরণে কণ্ঠ ছাড়লেন মীর, সঙ্গতে গায়িকা উজ্জ্বয়িনী

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 6, 2020 4:38 pm|    Updated: May 6, 2020 4:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার দৌলতে আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ‘লকডাউন’, ‘কোয়ারেন্টাইন’ এই শব্দগুলো একেবারে নিত্যসঙ্গী হয়ে উঠেছে। পালটেছে আমাদের রোজকার রুটিন। বন্ধ অফিস-কাছারি, স্কুল-কলেজ। জিমে যাওয়ার জো নেই! কিন্তু তাতে কী! জীবন তো আর থেমে থাকে না, তাই না! বাড়িতে বসেই আমরা নিজেদের মতো করে বিনোদনের উপায় খুঁজে নিয়েছি। হেঁশেল মানেই যেখানে আগে একেবারে ‘নৈব নৈব চঃ’ গোছের ব্যাপার ছিল, ১৪ পদ ছাড়া মুখে রুচতো না খাবার, সেসব স্বভাব বদলেছে। এই লকডাউন আমাদের সব শিখিয়ে দিয়েছে। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো, বাড়ির বাকি থাকা কাজগুলো সেরে নেওয়া, হেঁশেলে খুন্তি নাড়া থেকে খাবারের টেবিলে সোনামুখ করে যা হোক তাই দিয়ে খেয়ে নেওয়া। গৃহবন্দি জীবনকে যতই দুষি না কেন, এই কোয়ারেন্টাইন পর্ব যে আমাদের অন্যভাবে বাঁচতে শিখিয়েছে, তা অস্বীকার করার জায়গা নেই। লকডাউনের সাত-সতেরো নিয়ে সেরকমই এক ভিন্ন আমেজের গান বেঁধে ফেলল স্ট্রিটলাইট ফিল্মস। ইটালির জনপ্রিয় প্রতিবাদী গান ‘বেলা চাও’-এর অনুকরণে ‘দুষ্টু করোনা’-কাহিনি শোনালেন মীর আফসার আলি।

তবে এই মজার মিউজিক ভিডিওতে কিন্তু মীর একা কণ্ঠ ছাড়েননি। তাঁর সঙ্গে সঙ্গত দিলেন গায়িকা উজ্জ্বয়িনী মুখোপাধ্যায়ও। গৃহবন্দি থেকেই রোজকার বাড়ির কাজ, অফিসের কাজ যেভাবে সামলান, ভিডিওতে তারই এক ঝলক ফুটে উঠল। কখনও হেঁশেলে ঢুকে বাসন মাজছেন তো, আবার কখনও বা ল্যাপটপে মুখ গুঁজে কাজ করতে দেখা গেল তাঁকে। এই রুটিন অবশ্য একা মীরের নয়, লকডাউনে আমাদের প্রত্যেকেরই এই এক রোজনামচা হয়ে উঠেছে। আর মীর যখন, তখন ভিডিওয় প্রয়োজনীয় বার্তা দেওয়ার পাশাপাশি যে কমিক এলিমেন্ট যোগ হবেই, তা হলফ করে বলা যায়। তাঁর এই ‘আউট অফ দ্য বক্স’ ভাবার প্র্যাকটিস তো নতুন কিছু নয়! ‘ডালগোনা কফির ক্রেজ’ও তাই বাদ পড়ল না ভিডিও থেকে! পাশাপাশি ভিডিওতে উজ্জ্বয়িনীকেও দেখা গেল বাড়ির কাজ সারার পাশাপাশি ঘরদোড় পরিষ্কার রাখার বার্তা দিতে। ‘দুষ্টু করোনা’র শুটে মীরের ডিওপি (চিত্রগ্রাহক) হিসেবে কাজ করলেন তাঁর মেয়ে মুসকান।

[আরও পড়ুন: সদ্য দাদু হয়েছেন, কোয়েল-রানের ‘জুনিয়র’কে নিয়ে কী বললেন আবেগাপ্লুত রঞ্জিত মল্লিক]

উল্লেখ্য, ‘দুষ্টু করোনা’র এই গোটা ভাবনাটাই কিন্তু রোহন বসুর। রোহনের ভাবনাই ভিডিওতে ফুটিয়ে তুলেছেন মীর আফসার আলি, উজ্জ্বয়িনী মুখোপাধ্যায়-সহ আরও অনেকে। নিজের বাড়িকেই যে যার মতো করে শুটিং ফ্লোর বানিয়ে নিয়েছেন। ভাবনাকে বাস্তবায়িত করতে চমৎকার ভিডিও সম্পাদনা করেছেন পল্লব গায়েন। প্রযোজনার দায়িত্বে ছিলেন সুদর্শনা মৈত্র। তবে এই মিউজিক ভিডিওর একটি চমকপ্রদ অংশ হল মিউজিক। বাড়ির বাসন-কোসনের শব্দকে বেশ নিপুণতার সঙ্গে প্রয়োগ করেছেন আশু চক্রবর্তী। পরিচালক রোহন শট ডিভিশন বুঝিয়ে দিয়েছেন মীর, উজ্জ্বয়িনী-সহ প্রত্যেককে। জনগণের কাছে সচেতনার বার্তা দিতে এভাবেই এক মজাদার ভিডিও তৈরি করে ফেলল স্ট্রিটলাইট ফিল্মস।

[আরও পড়ুন: করোনায় সচেতনতার বার্তা দিতে ধারাভির ব়্যাপারদের ভিডিওয় অজয়-অক্ষয়-সুনীল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement