BREAKING NEWS

৩২ আষাঢ়  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

হোয়াটসঅ্যাপে প্রেসক্রিপশন পাঠালেই মিলবে ওষুধ, অভিনব উদ্যোগ সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 1, 2020 9:17 am|    Updated: April 1, 2020 9:17 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাড়িতে বয়স্ক মা-বাবা রয়েছেন? কিংবা এরকম কেউ রয়েছেন, যাঁকে বা যাঁদের প্রত্যহ ওষুধ খেতে হয়? কিন্তু লকডাউনের জেরে  কোনও ওষুধ পাচ্ছেন না! চিন্তা নেই। এরকম সমস্যার সমাধান করতেই এগিয়ে এলেন তারকা সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। শুধুমাত্র হোয়াটসঅ্যাপে প্রেসক্রিপশন পাঠালেই হবে। আপনার প্রয়োজনমতো ওষুধ কিনে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিলেন সাংসদ।

করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই নিজের সাংসদ তহবিল থেকে ৫০ লক্ষ এবং ব্যক্তিগতভাবে ১ লক্ষ টাকা মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দান করেছেন যাদবপুরের তারকা সাংসদ। COVID-19-এর সঙ্গে লড়াই করতে নিজের এলাকায় একটি টিম গঠন করেছেন সাংসদ মিমি। যাঁরা প্রত্যহ প্রতিটা মুহূর্তে এলাকাবাসীর সুবিধে-অসুবিধের দিকে নজর রাখছেন। তাই এবার খাবারের ব্যবস্থার পর এবার ওষুধেরও ব্যবস্থা করলেন সাংসদ।

লকডাউন পরিস্থিতিতে তাঁর লোকসভা কেন্দ্রের কোনও বাসিন্দার যেন প্রয়োজনীয় ওষুধ পেতে সমস্যা না হয়, সেরকমই পরিষেবার চালু করলেন। পাটুলি, গড়িয়া, সোনারপুর, নরেন্দ্রপুর এলাকায় যাঁরা থাকেন তাঁদের ওষুধের প্রয়োজন হলে ৮৯৬৭৪৬৬৪৫৫ এই নম্বরে প্রেসক্রিপশন হোয়্যাটস অ্যাপ করুন।  সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর টিম বাড়িতেই পৌঁছে দেবে ওষুধ। আর এই পরিষেবা পাওয়া যাবে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। এছাড়াও যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত যে কোনও ব্যক্তি যার বাইক থাকলে এবং তিনি যদি মিমির এই উদ্যোগে শামিল হতে চান, তাহলে ওপরে দেওয়া ফোন নম্বরে যোগাযোগ করুন।

[আরও পড়ুন: ‘করোনা মোকাবিলায় শাহরুখ-আমিরের অনুদান নেই কেন?’ নিন্দার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়]

করোনা মোকাবিলায় সাংসদ তথা অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী যেভাবে লড়ে যাচ্ছেন, তা কিন্তু চোখে পড়ার মতো, বলছেন তাঁর সংসদীয় এলাকার মানুষেরাই। কখনও অসহায়, সম্বলহীন মানুষদের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার জোগাড় করছেন তো আবার কখনও বা নিজের সংসদীয় এলাকার মানুষদের মাঝে মাস্ক, স্যানিটাইজার বিলি করছেন। তাঁর এলাকার দারিদ্রসীমার নিচে থাকা পরিবারগুলোকে যেন রাতে অভুক্ত থেকে ঘুমোতে যেতে না হয় সে ব্যবস্থাও করেছেন তারকা সাংসদ। শুধু তাই নয় নিজে পশুপ্রেমী হওয়ায়, পথ কুকুররাও যাতে এই লকডাউনের বাজারে একটু খেতে পায়, নিজে কোয়ারেন্টাইনে থেকে সেদিকেও কড়া নজর রয়েছে মিমির। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট শেয়ার করে সবাইকে আরজি জানিয়েছেন সতর্কতা অবলম্বন করে সবাই একযোগে যেন করোনা মোকাবিলায় তৎপর হন। এককথায় সাংসদ মিমির তৎপরতা দেখে মুগ্ধ তাঁর এলাকাবাসী। এবার নিজস্ব সংসদীয় এলাকার মানুষদের প্রয়োজন অনুযায়ী ওষুধ পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিলেন সাংসদ মিমি চক্রবর্তী।

[আরও পড়ুন: মানবিক মিমি, নিজে কোয়ারেন্টাইনে থেকেও পথ কুকুরদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা সাংসদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement