৭  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নুসরতের সম্প্রীতি বার্তায় মুগ্ধ ইসকন, মৌলবাদীদের ফতোয়া উড়িয়ে থাকছেন রথযাত্রায়

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 2, 2019 3:48 pm|    Updated: July 2, 2019 3:48 pm

Nusrat Jahan accepts ISKCON invitation for Rath Yatra

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “আমি ধর্মনিরপেক্ষ দেশ ভারতের একজন নাগরিক। যেখানে সর্বধর্মের মানুষ এবং সবরকম সংস্কৃতিকে সম্মান করা হয়। ধর্ম এবং ভগবানের দোহাই দিয়ে মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ সৃষ্টি করা উচিত নয়”, বসিরহাট কেন্দ্রের নবনির্বাচিত তৃণমূল সাংসদের এহেন সম্প্রীতি বার্তাতেই মন্ত্রমুগ্ধ হয়েছে ইসকন কর্তৃপক্ষ। আর তাই বৃহস্পতিবার রথযাত্রা উপলক্ষে বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে থাকার জন্য তারা আমন্ত্রণ জানিয়েছেন নুসরত জাহান রুহিকে। সংসদে পা রেখেই এই তৃণমূল সাংসদ যে গোটা দেশের নজর কেড়েছেন, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই।   

[আরও পড়ুন: সময় নেই, সংসদীয় এলাকা দেখাশোনার জন্য ‘প্রতিনিধি’ নিয়োগ সানির]

‘বসুধৈব কুটুম্বকম’ অর্থাৎ এই গোটা বিশ্ব একটি পরিবার। এই মন্ত্রেই বিশ্বাসী ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণা কনসাসনেস (ISKCON)-এর সদস্যরা। তাই মৌলবিদের রক্তচক্ষুতে দমে না গিয়ে নুসরতের ধর্মনিরপেক্ষ মনোভাব যে ইসকন কর্তৃপক্ষের পছন্দ হবেই, তা বলাই বাহুল্য। ইসকনের তরফে আমন্ত্রণ পেয়ে যারপরনাই আপ্লুত অভিনেত্রী তথা সাংসদ নুসরত জাহান। তিনি যে রথযাত্রার দিন খোদ ইসকনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন, সেকথাও জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টের মাধ্যমে। একটি ভিডিও শেয়ার করে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ইসকন কর্তৃপক্ষকে। শুধু তাই নয়, কলকাতাবাসীদেরও অনুরোধ জানিয়েছেন ইসকনের রথাযাত্রা অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য। তিনি বলেন, “আমি ধর্মনিরপেক্ষতায় বিশ্বাসী ছিলাম, আছি এবং থাকবও। সে যাই হয়ে যাক না কেন!” অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। সূত্রের খবর, ইসকন আয়োজিত ৮ দিন ব্যাপী এই রথযাত্রা অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী। 

[আরও পড়ুন:মালিয়া-মোদি নস্যি, স্টারলিং জালিয়াতি মামলায় ডিনো মরিয়াকে সমন ইডির]

নুসরত জাহান বা রুহি জৈন। আজ্ঞে! নিখিল জৈনকে বিয়ে করার পর এটাই তাঁর নতুন নাম৷ ইসলাম ধর্মের অনুসারী হয়েও হিন্দু নারীর মতোই তাঁর সিঁথি রাঙিয়েছেন সিঁদুরে৷ হাতে চূড়া, মেহেন্দি, গলায় মঙ্গলসূত্র, গায়ে আঁচল জড়িয়ে নববধূর বেশে গত ২৫ জুন সংসদে উপস্থিত হয়েছিলেন বসিরহাট কেন্দ্রের তৃণমূল সাংসদ। সংসদে দাঁড়িয়ে শপথবাক্য পাঠের সময় তাঁর গলায় শোনা গিয়েছে জয় হিন্দ, বন্দেমাতরম। আর এতেই নুসরতের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছিলেন মৌলবাদের ধ্বজাধারীরা। পালটা দিয়েছিলেন নুসরতও। মন্তব্যকারী উলেমাদের উদ্দেশে সৌম্য ভাষায় প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন নিজের পোস্টে। যা আধুনিক ভারতের জন্য একেবারে আদর্শ বলে মনে করছেন ইসকনের মুখপাত্র রাধারমণ দাস।

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে