২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  রোম্যান্স-অ্যাকশনে ভরপুর, ঠাসা ভিএফএক্সের কাজ নিয়ে প্রকাশ্যে এল বহু প্রতিক্ষীত ‘সাহু’র ট্রেলার। জুন মাসেই মুক্তি পেয়েছিল শ্রদ্ধা-প্রভাস অভিনীত এই ছবির প্রথম ঝলক। যা রীতিমতো উত্তেজনার পারদ চড়িয়েছিল। এবার ট্রেলার মুক্তিতে ভক্তদের সেই উন্মাদনা বেড়ে হল আরও দ্বিগুন।

[আরও পড়ুন: হ্যাকারের ‘উইকেট ডাউন’ স্টেটাসে আতঙ্ক, সাইবার সেলের দ্বারস্থ টিম ‘কে আপন কে পর’]

বড়পর্দায় আসন্ন প্রভাস ম্যাজিক কেমন হতে চলেছে তার আভাস মিলল ‘সাহু’র ট্রেলারে। ছবিতে প্রভাসের নায়িকা হিসেবে দেখা যাবে শ্রদ্ধা কাপুরকে। সুজিত রেড্ডির হাত ধরেই প্রথমবার একসঙ্গে দেখা যাবে প্রভাস-শ্রদ্ধা জুটি। অ্যাকশন ঘরানার ছবি। ঘোষণার পর থেকেই এই ছবি ঘিরে উত্তেজনার পারদ চড়ছিল। তাই টিজার-ট্রেলারের অপেক্ষায় মুখিয়ে ছিল দর্শকরা। আর সেই উত্তেজনা যে আরও বাড়িয়ে দিল ‘সাহু’র প্রথম ট্রেলার মুক্তি, তা বলাই বাহুল্য। টিজারে প্রভাস-শ্রদ্ধা জুটির রোম্যান্স বিশেষভাবে নজর কেড়েছিল। কিন্তু ট্রেলারে নজর কাড়ল ঝাঁ চকচকে একেবারে হলিউডি গোছের বেশ কিছু অ্যাকশন সিক্যুয়েন্স।

উল্লেখ্য, ‘সাহু’ দিয়েই তেলুগু ইন্ডাস্ট্রিতে পদার্পণ করতে চলেছেন শ্রদ্ধা। এবং এই ভাষা নিয়ে যাতে অভিনেত্রীর কোনও সমস্যা না হয়, তার দায়িত্ব নিয়েছিলেন প্রভাস খোদ। শ্রদ্ধা কাপুরকে এক পুলিশ অফিসারের চরিত্রে দেখা যাবে ছবিতে। চরিত্রের নাম অমৃতা নায়ার। ঘটনাচক্রে এই মহিলা পুলিশ অফিসারের প্রেমে পড়েন প্রভাস। ছবিতে খলনায়কের চরিত্রে দেখা যাবে নীল নীতিন মুকেশকে। ‘সাহু’তে প্রভাস এবং শ্রদ্ধা কাপুর ছাড়াও অভিনয় করেছেন মহেশ মঞ্জরেকর, মন্দিরা বেদি, ইভলিন শর্মা, চাঙ্কি পান্ডে এবং জ্যাকি শ্রফ।

[আরও পড়ুন: রাজ চক্রবর্তীর নতুন ছবিতে ঋত্বিক-পার্নো, প্রেক্ষাপটে অস্থির রাজনৈতিক পরিস্থিতি]

তামিল, তেলুগু ও হিন্দি মোট তিনটি ভাষায় মুক্তি পাবে ছবিটি। পরিচালনা করেছেন সুজিত রেড্ডি। সংগীত পরিচালনার দায়িত্বভার বর্তেছিল শংকর, এহসান এবং লয়ের উপর। ছবির শুটিং শুরু হয়েছিল ২০১৭ সালে। বাজেট ছিল মোট ৩০০ কোটি। অস্ট্রেলিয়া, হায়দরাবাদ, দুবাই এবং ইউরোপের বিভিন্ন জায়গায় শুটিং হয়েছে। এই ছবির জন্য হলিউডের খ্যাতনামা স্টান্ট পরিচালক পেং ঝাংকে আনা হয়েছিল। তাই বোধহয় ট্রেলারের অ্যাকশন দৃশ্য দেখে এই ছবিকে যে কেউ অনায়াসে হলিউড ছবি বলে দাবি করতেই পারেন।  

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং