BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘সুশান্ত ইস্যুতে অকারণে আমায় কাঠগড়ায় তুলছে মিডিয়া’, ফের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ রিয়া

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 10, 2020 5:10 pm|    Updated: August 10, 2020 5:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুশান্ত মামলায় ফের সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) দ্বারস্থ রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty)। এবার তাঁর অভিযোগ সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে। সুশান্ত কাণ্ডে মিডিয়া তাঁকেই নিশানা করছে, অভিযোগ রিয়ার। 

গত সপ্তাহের পর ফের সোমবার ভাই শৌভিককে নিয়ে ইডির দপ্তরে হাজিরা দেন প্রয়াত অভিনেতার বান্ধবী রিয়া। সঙ্গে ছিলেন তাঁর বাবা এবং মা। রিয়ার বিজনেস ম্যানেজার শ্রুতি মোদিও (Shruti Modi) এদিন ইডি-র প্রশ্নের জবাব দেন। আসেন সুশান্তের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানি (Siddharth Pithani)। সূত্রের খবর, মুম্বইয়ের খার এলাকায় রিয়া চক্রবর্তীর কেনা ফ্ল্যাট নিয়েই জিজ্ঞাসাবাদ করছেন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেটের (ED) অফিসাররা। বছরে ১২ থেকে ১৪ লক্ষ টাকা আয় করা রিয়া কীভাবে মুম্বইয়ের অভিজাত এলাকায় দামী ফ্ল্যাট কিনেছেন, তা জিজ্ঞেস করা হয়েছিল। সুশান্তের অ্যাকাউন্টের ১৫ কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ এনেছিলেন অভিনেতার বাবা কেকে সিং রাজপুত (K K Singh Rajput), তা নিয়েও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে জানা গিয়েছে। ইডির পাশাপাশি সুশান্ত মৃত্যু মামলার তদন্ত করছে সিবিআই। শোনা গিয়েছে, সুশান্তের বাবার বাড়ি গিয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা।

[আরও পড়ুন:করোনা কালে বিকল্প পেশার খোঁজ অমিতাভ বচ্চনের, এল মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়ার প্রস্তাব!]

এরই মাঝে শিব সেনা নেতা সঞ্জয় রাউতের (Sanjay Raut) বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করার হুমকি দিয়েছেন সুশান্ত সিং রাজপুতের খুড়তুতো ভাই নীরজ সিং বাবলু (Neeraj Singh Bablu)। “বিহার সুশান্তের জন্য কিছুই করেনি, অভিনেতা হিসেবে তাঁকে বিশ্বের কাছে চিনিয়েছিল মুম্বই।” এমনই মন্তব্য করা হয়েছিল শিব সেনার পক্ষ থেকে। দলীয় মুখপত্র ‘সামনা’র এক প্রতিবেদনে লেখা হয়েছিল, “সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু মামলা নিয়ে বিহার সরকারের হস্তক্ষেপ করা উচিত নয়। গত কয়েক বছর ধরে সুশান্ত তো মুম্বইয়ের বাসিন্দা। সুশান্তের জীবনের লড়াইয়ে বিহার শামিল হয়নি, বরং ওকে খ্যাতি এনে দিয়েছিল মুম্বই।” শিব সেনার পক্ষে দাবি করা হয়েছিল, সুশান্তের বাবার দ্বিতীয় বিয়ের পর নাকি তাঁর সঙ্গে সুশান্তের সম্পর্ক ভাল ছিল না। এর জেরেই নীরজ সিং বাবলু দাবি করেন, সঞ্জয় রাউতকে ক্ষমা চাইতে হবে না হলে তিনি মানহানির মামলা করবেন।

[আরও পড়ুন: ‘রাম মন্দির তৈরি হলে সপরিবারে পুজো দিতে যাব’, বিতর্কে জল ঢাললেন দেব]

এদিকে সুশান্ত মামলায় ক্রমশ মহেশ ভাটের (Mahesh Bhatt) নামও আরও বেশি করে জড়িয়ে পড়ছে। সূত্রের খবর, সুশান্ত বাইরে থাকাকালীন পরিচালক মহেশ ভাটের সঙ্গে রিয়ার প্রায় ৯২ মিনিট কথা হয়েছিল। ২০ থেকে ২৫ জানুয়ারির মধ্যে মোট সাতবার কথা হয়েছিল দু’জনের। যদিও এর আগে মুম্বই পুলিশের কাছে দেওয়া বয়ানে নাকি মহেশ দাবি করেছিলেন তিনি কখনও রিয়াকে সুশান্তের সঙ্গ ছাড়তে বলেননি। তাহলে এত কথা কী বিষয়ে হয়েছিল? সেই প্রশ্নের জবাব দিতে ফের সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হতেই পারে বলিউড পরিচালককে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement