০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনে নিরলস পরিশ্রম ‘ফুডম্যান’-এর, পাশে দাঁড়ালেন অভিনেতা রুদ্রনীল

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: June 27, 2020 10:06 pm|    Updated: June 27, 2020 10:06 pm

Rudranuil Ghosh extends helps to Sunderban's foodman

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনে গিয়ে আগেই বন্ধুদের নিয়ে ত্রাণ বিলি করেছিলেন অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। এবার সেই এলাকায় ‘কমিউনিটি কিচেন’ চালানো শিক্ষক চন্দ্রশেখর কুন্ডুর পাশে দাঁড়ালেন স্বেচ্ছায়।

সুপার সাইক্লোন আমফান তাণ্ডব চালিয়ে যাওয়ার পর একমাস হয়ে গেলেও তার ক্ষত এখনও কোথাও কোথাও দগদগে। বিশেষ করে সুন্দরবন এলাকা এখনও যুঝে চলেছে। আর সেই ম্যানগ্রোভ অঞ্চলেই প্রথমদিন থেকে ‘কমিউনিটি কিচেন’ চালাচ্ছেন চন্দ্রশেখর কুন্ডু নামে আসানসোলের এক শিক্ষক। যিনি কিনা সেই এলাকায় এখন ‘ফুডম্যান’ নামেই পরিচিত। আর চন্দ্রশেখরের সেই মহৎ উদ্যোগের কথা জানতে পেরেই তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন টলিউড অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ (Rudranil Ghosh)।

ফেসবুকেই প্রথম চন্দ্রশেখরবাবুর ‘কমিউনিটি কিচেন’-এর বিষয়টি জানতে পারেন রুদ্রনীল। এরপরই তাঁকে ফোন করে পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছেপ্রকাশ করেন অভিনেতা। শুধু তাই নয়, কুলতলির বাবুরামচকের কমিউনিটি কিচেনে পৌঁছে চন্দ্রশেখরের (Chandrasekhar Kundu) সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে রুদ্রনীল খাবারও পরিবেশন করেন। এদিন তিনি দায়িত্ব নিয়েছেন প্রায় ৪০০ মানুষের। শিক্ষক চন্দ্রশেখর আদতে আসানসোলের বাসিন্দা। তাঁর এই উদ্যোগে এখনও পর্যন্ত বহু মানুষ, ক্লাব ও বিভিন্ন সংস্থাকে পাশে পেয়েছেন তিনি। কিন্তু দিনে দিনে চাপ বাড়ছে। কারণ, গোদের উপর বিষফোঁড়া লকডাউন। অনেকেই কর্মহীন। উপরন্তু আমফানের জন্য ক্ষতিগ্রস্তদের দুর্দশা আরও বেড়েছে বই কমেনি! তাই দু’মুঠো ভাতের জন্য কমিউনিটি কিচেনের সামনে লাইনও বেড়েছে। আর এই অসহায় মানুষগুলির কথা ভেবেই রুদ্রনীল ঘোষ যেভাবে চন্দ্রশেখরবাবুর পাশে দাঁড়িয়েছেন, তাঁর জন্য অভিনেতাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘প্রেমটাকে স্বস্তিকা দেহব্যবসা বুঝল! আমার দায় নেই ইন্ডাস্ট্রির কাউকে বোঝানোর’: শ্রীলেখা]

কবে থেকে শুরু হয় এই কর্মযজ্ঞ? জানা গিয়েছে, ২৩মে প্রথম কুলতলিতে এই কর্মযজ্ঞ শুরু করেন আসানসোলের বাসিন্দা চন্দ্রশেখর কুন্ডু। আশেপাশের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের প্রায় ৬০০ মানুষের মুখে দু’মুঠো ভাত তুলে দেওয়াই ছিল তাঁর লক্ষ্য। শুরুর এক সপ্তাহের মধ্যেই আরও বেশ কয়েকটি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার খবর আসতে শুরু করে। এরপর একে একে মৌসুনী দ্বীপ, সন্দেশখালি, চিতুরি ও কুলতলির বাবুরাম চকে কমিউনিটি কিচেন শুরু হয়। অসহায় মানুষগুলোর দুঃখ-দুর্দশা চন্দ্রশেখরকে ভাবিয়ে তোলে যে, কীভাবে এই সমস্ত মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াবেন! 

ভাত, সোয়াবিন, আলুর তরকারি থাকে পদে। সেই রাত ৩টে থেকে শুরু হয় আয়োজন। গত ৪ বছর ধরেই যদিও কমিউনিটি কিচেন চালানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে চন্দ্রশেখরের। সঙ্গী আরও ৩ বন্ধু। তবে আমফান বিধ্বস্ত এই সর্বহারাদের কথা ভেবে যেভাবে অভিনেতা রুদ্রনীল Rudranil Ghosh) স্বেচ্ছায় এগিয়ে এসেছেন, তাতে আগামীতে আরও অনেকেই তাঁকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবেন বলে মনে করছেন সমাজবন্ধু চন্দ্রশেখর কুন্ডু।

[আরও পড়ুন: বিহারের ‘সাইকেল গার্ল’ জ্যোতি কুমারির পড়াশোনার দায়িত্ব নিলেন পরিচালক ফারহা খান]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে