২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাজ্য সরকারের প্রার্থী নিয়োগের তালিকায় সানি লিওনের নাম!

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: September 12, 2019 10:14 am|    Updated: September 12, 2019 10:54 am

Sunny Leone's name appear in West Bengal health recruitment list

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:   সানিতে মজে সরকার! সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যঙ্গ করে এমনটাই বলছেন নেটিজেনরা। আসলে রাজ্য সরকারের চাকরির নিয়োগের তালিকায় রয়েছে সানি লিওনের নাম। সে কী! অবাক হয়ে প্রশ্ন তুললেও, সত্যি। তালিকা দেখতে গিয়ে স্পষ্ট চোখে পড়ছে প্যানেলে জ্বলজ্বল করে থাকা বলিউড অভিনেত্রী তথা প্রাক্তন পর্ন তারকা সানি লিওনের নাম।  

[আরও পড়ুন: সাইবার ক্রাইমের ফাঁদে অরুণিমা-মানালি, শেয়ার করলেন ভয়াবহ সেই অভিজ্ঞতা]

লোকসভা ভোটের সময়ে সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামী গুরদাসপুরের বিজেপিপ্রার্থী সানি দেওলের নাম করতে গিয়ে সানি লিওনের নাম নিয়েছিলেন। যা নেটদুনিয়ার যূপকাষ্ঠেও পড়তে হয়েছে অর্ণবকে। এবার আবার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের প্রার্থী নিয়োগের তালিকায় অভিনেত্রী সানির নাম! পশ্চিমবঙ্গ স্বাস্থ্য নিয়োগ বোর্ডের ফেসিলিটি ম্যানেজারের চাকরিতে প্রার্থী বাছাই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। ফের রাজ্য সরকারের চাকরিতে প্রার্থী বাছাইয়ের তালিকায় অভিযোগ উঠেছে বিস্তর গরমিলের। চূড়ান্ত প্যানেলে খালি চোখেই ধরা পড়ছে একাধিক ভুল। আর সেই তালিকাতেই নাম রয়েছে সানি লিওনের। যেই কাণ্ড দেখে চোখ কপালে উঠেছে অনেকেরই। প্যানেলে কীভাবে প্রাক্তন ওই পর্ন তারকার নাম আসে, তাই নিয়ে পড়ে গিয়েছে শোরগোল। শুধু সানির নামই নয়, রয়েছে গোলযোগ। এমনকী সম্ভাব্য তালিকার কোথাও তো আবার মহিলা পদপ্রার্থীর নাম এবং তাঁর বাবার নাম একই রয়ে গিয়েছে। কোথাও আবার বাবা ছেলের আলাদা পদবীও দেখা গিয়েছে।

রাজ্য সরকারের প্রার্থী নিয়োগ তালিকার ছবি তুলে আবার অনেকেই সানি লিওন প্রসঙ্গ টেনে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিদ্রুপে মেতেছে। একদূর পড়ে যদি চমকান, তাহলে দাঁড়ান! বাকি রয়েছে আরও। তফসিলি উপজাতি প্রার্থীদের তালিকাতেই রয়েছে সানি লিওনের নাম। এমনকী, তাঁর বাবার নামের জায়গায় লেখা দিলীপ সানি।

[আরও পড়ুন: হিমেশের উপহার, ‘তেরি মেরি কাহানি’র ভিডিওতেও এবার রানু মণ্ডল]

অনেকেই দাবি করেছেন এই আবেদনকারী ভুয়ো। যদি তাই হয়, তাহলে যিনি ফেক আইডি বানিয়ে আবেদন করেছেন, তাঁর চরম শাস্তির দাবি তুলছেন কেউ কেউ। কারণ হিসেবে বলছেন, এই ভুয়ো আবেদনকারীর জন্য অন্তত একজন যথাযোগ্য আবেদনকারী চূড়ান্ত তালিকায় জায়গা পেলেন না। অনেকে আবার বলছেন, যেহুতু সংরক্ষিত ক্যাটাগরির প্রার্থীদের পরীক্ষা ফিতে ছাড় দেওয়া হয়, এরফলে অনেকেই ইচ্ছাকৃত ফেক আইডি বানিয়ে আবেদন করতে থাকেন। আর এখানেই ওয়েস্ট বেঙ্গল হেলথ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের কার্যপ্রণালী নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। কীভাবে তা চোখ এড়িয়ে গেল, সেই প্রশ্নও তুলেছেন অনেকে।    

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে